যেসব আমল দিয়ে লাইলাতুল কদর পালনের পরামর্শ মুশফিকের

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১ এপ্রিল ২০২৪, ১৩:৫৬ |  আপডেট  : ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৩২

রহমত, বরকত ও মাগফিরাতের মাস মাহে রমজান। দেখতে দেখতে পেরিয়ে গেছে এবারের রমজানের ২০ দিন। তবে রমজানের শেষের ১০ দিনের বেজোড় রাতের গুরুত্ব সবচেয়ে বেশি। শেষ দশকের যেকোনো এক বিজোড় রাতে পবিত্র কোরআন নাজিল হয়েছে। বিভিন্ন হাদিসে এই বিজোড় রাতে শবে কদরের সন্ধানও করতে বলা হয়েছে।

এদিকে শবে কদর উপলক্ষে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি পোস্ট দিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। রমজানের শেষ ১০ রাত যেসব আমল দিয়ে সাজাতে হবে, রোববার (৩১ মার্চ) রাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে তা জানিয়েছেন মুশফিক।

কদরের রাত নিয়ে মুশির ভাষ্য, আসসালামুআলাইকুম, আজ থেকে কদরের রাত শুরু। আগামী দশটি রাত এর যেকোনো একটিতে মহিমান্বিত সেই লাইলাতুল কদর, যা হাজার মাসের চেয়েও উত্তম! সেই রাতে যে কেউ কোনো নেক আমল করবে, তা তার আমলনামায় ৮৪ বছর যাবত প্রতিদিন করতে থাকা ইবাদতের অন্তর্ভুক্ত হয়ে যাবে সুবহানাল্লাহ!

আমরা নিম্নে উল্লেখিত কিছু নেক আমল দিয়ে আমাদের এই কদরের রাতগুলো সাজাতে পারি ইনশাআল্লাহ। আল্লাহ কবুল করুন।

১. দান (কমপক্ষে ১ টাকা হলেও)

২. নামাজ (অন্তত দুই রাকাত)

৩. দু’আ (গোটা উম্মাহর জন্য)

৪. ৩ বার সূরা ইখলাস পড়া (কোরআন খতমের নিয়তে)

৫. কোরআন তিলাওয়াত ও মুখস্ত (হিফজের নিয়তে)

৬. রোজাদারকে ইফতার প্রদান (একটা খেজুর দিয়ে হলেও)

৭. তালিম+দ্বীনের দাওয়াত

৮. যিকির-আজকার

নিজের পোস্টের শেষে সাবেক এই অধিনায়কের মন্তব্য, কারো কথা শুনে কেউ নেক আমল করলে উক্ত ব্যক্তির জন্য আমলকারীর সমপরিমাণ সওয়াব লাভ হয়, সুবহানাল্লাহ। তাই আসুন আজই আমরা এই কথাগুলো মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দেই। জাযাকাল্লাহ খায়ার।

 

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত