প্রিন্স মাহমুদ ও শুভ্র দেবের পাল্টা জবাব

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬:৩৫ |  আপডেট  : ১০ এপ্রিল ২০২৪, ২১:৫৬

চলতি বছরের একুশে পদক ইস্যুতে সংগীতশিল্পী শুভ্র দেবকে নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন দেশের জনপ্রিয় সংগীতজ্ঞ প্রিন্স মাহমুদ। বিষয়টি ভালোভাবে নেননি শুভ্র দেব। পাল্টা মন্তব্যে ‘প্রিন্স মাহমুদ আমাদের লেভেলের নয়’ বলে মন্তব্য করেন এই গায়ক। শুধু তাই নয়, শুভ্র দেব দাবি করেন, প্রিন্স মাহমুদ তার পল্লবীর বাসায় গিয়ে বসে থাকতেন। তাকে দিয়ে গান করানোর জন্য।

শুভ্র দেব সরাসরি বলেন, ‘তিনি (প্রিন্স মাহমুদ) তো আমার গানের জন্য বাসায় এসে বসে থাকতেন। কদিন আগেও তিনি আমাকে গানের জন্য ফোন করেছেন।’ শুভ্র দেবের এমন বক্তব্যের পর বুধবার বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে আবার পোস্ট দিয়েছেন প্রিন্স মাহমুদ। সেখানে তিনি শুভ্র দেবের এমন দাবিকে অসত্য বলে জানান।

শুভ্র দেব বলেন, প্রিন্স মাহমুদ আমার পল্লবীর বাসায় থাকতো আমাকে দিয়ে গান গাওয়ানোর জন্য। ও একটা মিক্সড অ্যালবামে গান করার জন্য অনেকদিন গিয়ে বসে ছিল। আমি মিক্সড অ্যালবামে গান করবো না। কারণ, তখন সলো অ্যালবামে আমি হাইয়েস্ট পেইড শিল্পী ছিলাম। তারপরও আমার খারাপ লাগলো, অনেক ইয়াং একটা ছেলে।

তবে শুভ্র দেবের পল্লবীর বাসা চিনতেন না বলে দাবি প্রিন্স মাহমুদের। বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এ বিষয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন এই সংগীত স্রষ্টা। যেখানে তিনি লেখেন, আমি অতি ক্ষুদ্র মানুষ। কিন্তু মিথ্যা বলি না। তিনি সত্য গোপন করছেন। কিছুদিন আগে কেন, আমি তাকে ২৫ বছরে ফোন করি নাই। ভদ্রলোকের বাসা যে পল্লবী, এটা জানতাম না। সবসময় আমি সবার থেকে দূরে থাকতে পছন্দ করি। অতি নিকটজন না হলে আড্ডায় বসি না, কোথাও গিয়ে বসে থাকা তো দূর। পুরোনো দিনে গানের যোগাযোগ সব স্টুডিওতে হতো। কাজ শেষ হলে এক মুহূর্তও স্টুডিওতে আড্ডা দেই নাই।

মন্তব্যের ঘরে তিনি আরও লেখেন, জেমস ভাই ছেলেপেলেকে বলতো, প্রিন্সকে ধরতে হলে ছাই দিয়ে ধরতে হয়। কুমার বিশ্বজিৎ দাদা তো এ কথা লাইভেও বলেছেন। এসব নিয়ে কথা বলতে ভাল লাগে না। প্রিন্স আরও যোগ করেন, আমার কাছে সব শিল্পী এক। সংগীতের শপথ আমার কারো উপর কোনো রাগ নেই। আমি শুধু দু’একটা অসঙ্গতি-অনিয়ম নিয়ে কথা বলেছি। আমার ভুল হলে ক্ষমা করবেন।

প্রসঙ্গত, দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ ২১ জন বিশিষ্ট নাগরিককে একুশে পদক-২০২৪ প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে সরকার। যেখানে বিনোদন অঙ্গন থেকে ১০ জন পেয়েছেন এই সম্মাননা।সেই তালিকায় রয়েছেন সংগীত তারকা শুভ্র দেবের নাম। যেটা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন সংগীতজ্ঞ প্রিন্স মাহমুদ। নিজের ফেসবুকে এক পোস্টে এই শিল্পী লিখেছেন, ‘আলাউদ্দিন আলী এবারও একুশে পদক পেলেন না। এন্ড্রু কিশোর বেঁচে থাকলে আলাউদ্দিন আলীকে পদক না দিয়ে তাকে দেওয়া হচ্ছে জানতে পারলে লজ্জা পেতেন...’

শুধু তাই নয়, শুভ্র দেবের আগে আরও অনেকের এই রাষ্ট্রীয় সম্মান প্রাপ্য জানিয়ে তিনি বলেন, ‘দেশের সংগীতে শুভ্র দেবের অবদান আছে কিন্তু তার চেয়ে অনেক বেশি অবদান লাকী আখন্দ, নকিব খান, আইয়ুব বাচ্চু, কুমার বিশ্বজিৎ, তপন চৌধুরী, হামিন আহমেদ, মাকসুদ, মাহফুজ আনাম জেমস এবং প্রিয় গীতিকবি কাওসার আহমেদ চৌধুরী ও শহীদ মাহমুদ জঙ্গির। প্রিয় শুভ্র দেবের উচিত এই প্রসঙ্গে কথা বলা। নিজে পদক না গ্রহণ করে সত্যকার মেধাবীকে পদক দিতে বলার এই সংস্কৃতি এখনই শুরু হোক... 

প্রিন্স মাহমুদ আরও বলেন, ‘শুভ্র দা আমার কাছের মানুষ আমার ওপর রাগ করবেন কিন্তু সত্য বলছি এই সত্য যদি স্বীকার করেন তাহলে শিল্পী হিসেবে তার জায়গা অনেক ওপরে থাকবে। এখানে শুভ্র দেব নামটি উপলক্ষ মাত্র। যিনি পদক পাচ্ছেন তিনি যদি উপলব্ধি করেন তার চেয়ে যোগ্যতর মানুষটি পদকের ক্ষেত্রে বঞ্চিত তিনি তার কথা বলে যাবেন। সব ক্ষেত্রেই তা হওয়া উচিত।’ 

এদিকে প্রিন্স মাহমুদের এমন বক্তব্যের পর সম্প্রতি বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন শুভ্র দেব। তিনি বলেছেন, এই পুরস্কার তার অনেক আগেই পাওয়া উচিত ছিল। এমনকি প্রিন্স মাহমুদ তাদের লেভেলের নয় বলেও মন্তব্য করেছেন এই গায়ক।

 

সা/ই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত