মুন্সীগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ মার্চ ২০২১ |  আপডেট  : ১২ মে ২০২১

কাজী দীপু, মুন্সীগঞ্জ: ‘বঙ্গন্ধুর জন্মদিন, শিশুর হৃদয় হোক রঙিন’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে মুন্সীগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শতবর্ষ জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস পালিত হয়েছে। বুধবার সকাল থেকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পুরুষ্কার বিতরণ, সেচ্ছায় রক্তদান, আলোচনা সভা অনুুষ্ঠিত হয়। এর আগে সকালে সুর্যোদয়ের সাথে সাথে তোপধ্বনি মধ্যে দিয়ে দিবসটি উদযাপন শুরু হয়। পরে সকালে সাড়ে ৯টার দিকে জেলা শিল্পকলা একাডেমী প্রাঙ্গণে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলার সর্বস্থরের জনগণ। এছাড়া শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করে শতাধিক কোমলমি শিশু। এ সময় এক’শ পায়ারা অবমুক্ত করে জেলা শিল্পকলা অডিটরিয়ামে কেক কেটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতিয় শিশু দিবস উদযাপন করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস।

জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন সরকারি হরগঙ্গা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আব্দুল হাই তালুকদার, পুলিশ সুপার মো. আব্দুল মোমেন, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম, সিভিল সার্জন ডা. মো. আবুল কালাম আজাদ, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আনিছুজ্জামান আনিছ, মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব প্রমুখ।

অন্যদিকে সদরের মিরকাদিম পৌরসভায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উদযাপনের লক্ষ্যে রামগোপালপুর বিউটি রাইস মিল মাঠে আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও ১০১ কেজি ওজনের কেক কেটে জন্মশত বার্ষিকী পালন করা হয়।  বঙ্গবন্ধুর ১০১তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন পরিষদ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরি পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব।

আ’লীগ নেতা আব্দুল মালেকের সভাপতিত্বে এবং আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুমন দেওয়ানের স ালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো আফসারউদ্দিন ভুইয়া, সাধারণ সম্পাদক সামছুল কবিরসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
অপরদিকে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে দিনব্যাপী আয়োজিত অনুষ্ঠানের মধ্যে সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে “মুজিব মানে বাংলাদেশ” নামে একটি নাটক ম স্থ হয়। পরে দিনব্যাপী নানা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।


 

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত