ওবায়দুল কাদের শঙ্কামুক্ত, বিদেশে নেওয়ার প্রয়োজন নেই: বিএসএমএমইউ

  গ্রামনগর বার্তা রিপোর্ট

প্রকাশ: ১৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৫৯ |  আপডেট  : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২২:৫৬

অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের শঙ্কামুক্ত এবং সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক মো. শারফুদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেছেন, পর্যবেক্ষণের জন্য তাকে আরও দুএকদিন তাকে হাসপাতালে ভর্তি রাখা হবে। চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে বিএসএমএমইউয়ে চিকিৎসাধীন সেতুমন্ত্রীর সর্বশেষ শারীরিক পরিস্থিতি তুলে ধরেন বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য। এর আগে কাদেরের শারীরিক অবস্থা নিয়ে বৈঠক করেন তার চিকিৎসায় গঠিত ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড। সেই বোর্ডের প্রধান বিএসএমএমইউ উপাচার্য।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আপনারা গতকাল উৎকণ্ঠায় ছিলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের হাসপাতালে ভর্তি নিয়ে। আমরা ওনার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছি। ওনার চিকিৎসায় ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। গতকালের তুলনায় তিনি অনেক ভালো আছেন। ওনার ডায়াবেটিস গতকাল ১২ ছিল এখন ৫। ব্লাড প্রেসার, অক্সিজেন স্যাচুরেশন সবকিছু স্বাভাবিক। তবে আরও দু’একদিন অবজারভেশনে রেখে আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে যাবো। উনার জন্য সবাই দোয়া করবেন।’

বিএসএমএমইউ উপাচার্য আরও বলেন, এই মূহুর্তে চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে যাওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। সব ধরনের উন্নত চিকিৎসা বাংলাদেশেই সম্ভব। সেতুমন্ত্রীর সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন ডা. শারফুদ্দিন।

২০১৯ সালের ৩ মার্চ গুরুতর অসুস্থ হয়ে বিএসএমএমইউয়ে ভর্তি হন ওবায়দুল কাদের। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর এনজিওগ্রাম করে তার করোনারি ধমনিতে তিনটি ব্লক পান চিকিৎসকেরা, যার মধ্যে একটি অপসারণ করা হয়। এরপর তাকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে দুই মাসেরও বেশি সময় চিকিৎসাধীন থাকার পর দেশে ফেরেন তিনি।

সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফেরার পর ২০২০ সালে আবার অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন কাদের। গত বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি অসুস্থ হওয়ার পর তাকে আবারও ভর্তি করা হয় বিএসএমএমইউতে। সুস্থ হওয়ার পর তিনি বাসায় ফেরেন।

গতকাল ফের অসুস্থ হলে সেতুমন্ত্রীকে বিএসএমএমইউতে ভর্তি করা হয়।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত