সিরাজদিখানে মাছ ধরতে বাধা দেয়ায় একই পরিবারের আটজনকে পিটিয়ে জখম

  লতা মন্ডল,সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৯:১৮ দুপুর |  আপডেট  : ২৭ জুলাই ২০২১, ৫:২৪ দুপুর

মাছ ধরতে বাধা দেয়ার একই পরিবারের আটজনকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিবেশীরা।গুরুতর আহত তিনজনকে সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে বাকি ৫ জনকে চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দিয়েছে কর্তব্যরত চিকিৎসক। আজ শনিবার বিকাল ৫টায় উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নের পশ্চিম ব্রজেরহাটী গ্রামে  এ ঘটনা ঘটে। 

জানা গেছে, উপজেলার পশ্চিম ব্রজেরহাটী গ্রামে  শহীদ গাজীর জলাশয়ে প্রতিবেশী  ছানু গাজী (৬৫),শাহলম গাজী(২২), ও সাগর গাজী জোড়পূর্বক মাছ ধরতে গেলে, এ সময় শহীদ গাজী ও রিক্তা গাজী গাজী তাদের মাছ ধরতে বাধা দেয়। এতে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে শহীদ গাজীকে (৫০) পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। তাকে রক্ষায় তার স্ত্রী নাছিমা বেগম(৩৮), ভায়রা মনির হোসেন,ছোট বোন মাকসুদা গাজী,রিক্তা আক্তার রোজীনা ও দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া কন্যা শিমরান(১৭),অষ্টম শ্রেনী পড়ুয়া আলো (১৪) ও ছেলে নিবির(১২) এগিয়ে আসলে তাদেরকেও বেধড়ক মারধর করেন। দ্রুত স্বজনরা তাদের উদ্ধার করে সিরাজদিখান  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। ওই হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে রিক্তা আক্তার রোজিনা সিরাজদিখান থানায় প্রতিবেশী ছানু গাজীসহ ৫ জনের নামে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ ঘটনা তদন্তে এলাকা পরিদর্শন করেছে। আহত শহীদ গাজী বলেন, আমার জলাশয়ে পুকুরে ছানু গাজী,শাহলম,সাগর,শুকরান,ববিতাসহ ৭-৮ জন লোকে জোরপূর্বক মাছ ধরে নিয়ে যাচ্ছিল। আমি এতে বাধা দিলে আমাকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। আমাকে রক্ষায় আমার স্ত্রী ও স্কুল পড়ুয়া কন্যা ও ছেলে এগিয়ে গেলে তাদেরকেও মারধর করেছে। তিনি আরও বলেন, জলাশয়ের সমুদয় মাছ তারা ধরে নিয়ে গেছে এবং এ নিয়ে আমি বাড়াবাড়ি করলে আমাকে মেরে ফেলবে বলে শাসিয়ে গিয়েছে। আমি এ ঘটনার বিচার দাবী করছি। এ বিষয়ে ছানু গাজী মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন ওই পুকুরে আমাদেরর জায়গা আছে তারা আমাদের মাছ ধরতে বাধা দিলে ধাক্কা ধাক্কির সময় ওদের মাথা ফাটে। 

সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আর এম ও ডাঃ তাইফুল ইসলাম বলেন, আহত আটজনকেই যথাযথ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে এর মধ্যে তিনজনকে ভর্তি রাখা হয়েছে। 

সিরাজদিখান থানার ওসি মোঃ বোরহান উদ্দিন বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত