সিরাজদিখানে তুচ্ছ ঘটনায় হিন্দু পরিবারের বাড়িতে ঢুকে হামলা, মহিলাাসহ আহত ৩

  সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১১ এপ্রিল ২০২১, ২১:৫৭ |  আপডেট  : ২১ জুন ২০২৪, ১৮:১৩

মুন্সীগঞ্জ সিরাজদিখান  উপজেলার দক্ষিন তাজপুর গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হিন্দু পরিবারের বাড়িতে ঢুকে হামলা চালায় প্রভাবশালীরা। এ হালায় নারীসহ আহত হয়েছেন ৩ জন। আজ রোববার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলার রশুনিয়া ইউনিয়নের দক্ষিন তাজপুর গ্রামে বোতল নিক্ষেপকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে। হামলাকারীরা পার্শ্ববর্তী বাড়ির দক্ষিন তাজপুর গ্রামের আব্দুল রাজ্জাক ফকিরের ৩ ছেলেসহ কয়েকজন। এ ঘটনায় রোববার সিরাজদিখথান থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে সিরাজদিখানা থানার পুলিশ ওই সংখ্যালঘু পরিবারের বাড়িতে যায়।  এর আগেই এলাকার লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে আহতদের গুরুত্বর অবস্থা’ দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য দুই জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে রেফার্ড করেন। 

স্থানীয় সূত্রে ও ভুক্তভোগী পরিবার জানায়, আজ রোববার বিকেলে জনৈক কাদীর সৈয়ালের ছলে সুলতান (১২) বোতল নিক্ষেপ করলে দোলন মন্ডল (২৬)তাকে বোতল নিক্ষেপে নিষেধ করে এ সময়  আব্দুল রাজ্জাকের মেঝ ছেলে মোঃ  রাজীব পাশের বাড়ির হিন্দু পরিবারের সবাইকে অশ্লিল ভাষায় গালাগালি করে। ঘটনার প্রতিবাদ করলে সাথে সাথে আব্দুল রাজ্জাক ফকিরের ছেলে রাসেল, রাজীব, সজীবসহ কয়েকজন দুর্বৃত্ত সন্ধ্যায় বাড়িতে ঢুকে অতর্কিত হামলা চালায়। হামলাকারীরা দেশীয় ধারাল অস্ত্র টেটা বল্রব চাপাতি ব্যবহার করে। এ সময় বাড়িতে লুটপাটও চালায় তারা।  ঘটনার খবর পেয়ে এলাকার লোকজন তাদের উদ্ধার করে। এ ঘটনায় দোলন মন্ডল (২৬),ময়না রানী মন্ডল (৪৫), রতন মন্ডল  গুরুতর আহত হন। বর্তমানে এক জন সিরাজদিখান স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে তাদের চিকিৎসা চলছে গুরুত্বর দুইজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রাফার্ড করা হয়েছে। 

এ ঘটনায় হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা তীব্র্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ন্যায় বিচার দাবি করেছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সিরাজদিখান উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সৈয়দ ফয়েজুল ইসলাম জানান, তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে এ মারামারি  হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পুলিশকে জানানো হয়েছে। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সিরাজদিখানা থানার ওসি মোঃ বোরহান উদ্দিন জানান, ঘটনাস্থল পুলিশ পরিদর্শন করেছে।  অভিযোগ হলে দ্রুত সময়ের মাঝে আসামিদের গ্রেপ্তার করা হবে। 

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত