শাজাহানপুরে বাবা হুজুরকে গুলি করে হত্যা 

  সজিবুল আলম সজিব শাজাহানপুর(বগুড়া)প্রতিনিধি:

প্রকাশ: ৪ মে ২০২১ |  আপডেট  : ১১ মে ২০২১

বগুড়ার শাজাহানপুরে হাফেজ মোজাফফর হোসেন(৫৫) ওরফে বাবা হুজুর নামে এক ঝাঁ-ফু কবিরাজকে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের পারতেখুর সড়কের মাথা এলাকায় এ হত্যাকান্ড ঘটে। নিহত মোজাফফর হোসেন সিংড়া উপজেলার সুকাশ লওদা গ্রামের মৃত সায়েদ আলীর পুত্র। খবর পেয়ে জেলা পুলিশ সুপার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। 

জানা যায়, মোজাফফর হোসেন গ্রামের বাড়ি সিংড়া উপজেলার সুকাশ থেকে বগুড়া শহরের বাসাতে সিএনজি যোগে ফেরার পথে পথিমধ্য শাজাহানপুর উপজেলা পারতেখুর সড়কের মাথা এলাকায় পৌঁছালে পূর্ব থেকে একটি মোটরসাইকেল নিয়ে অবস্থান করা দুই যুবক সিএনজি’র ভেতরে থাকা অবস্থায় মোজাফফর হোসেনকে একের পর এক বুক ও পেটে চারটি গুলি করে পালিয়ে যায় । ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্য হয়। তবে সিএনজির অন্য যাত্রীরা অক্ষত রয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। এ বিষয়ে জানতে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) ফয়সাল মাহমুদ জানান, হত্যার কারণ ও হত্যাকারীদের সনাক্ত করতে পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।  

 উল্লেখ্য, দীর্ঘ ৩০/৩৫ বছর ধরে কবিরাজি চিকিৎসা করে আসছেন মোজাফফর হোসেন। ঝাঁর- ফুঁ, পানি পরা ও গাছ-গাছড়া ওষুধের মাধ্যমে তিনি চিকিৎসা সেবা প্রদান করতেন। সবার কাছে তিনি বাবা হুজুর হিসেবে পরিচিত । দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে বগুড়ার শহরের নিশিন্দারা এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন। পাঁচ বছর পূর্বে তিনি ২য় বিয়ে করেন। ২য় স্ত্রী বগুড়া ভাড়া বাসায় থাকেন। ১ম স্ত্রী ও সন্তানরা তাঁর গ্রামের বাড়িতে থাকেন। নিশিন্দারা ফকির উদ্দিন স্কুলের সামনে তাঁর প্রতিষ্ঠিত একটি কওমী মাদ্রাসা রয়েছে। কওমী মাদ্রাসার একটি কক্ষে সে কবিরাজি চিকিৎসা চালিয়ে আসছিলো। গত ৪/৫ দিন পূর্বে গ্রামের বাড়িতে বোরো ধান কাটা-মাড়াইয়ে জন্য যায়। ধান কাটা-মাড়াই শেষ করে বগুড়ায় ফেরার পথে তিনি খুন হলেন। 

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত