যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি ১১ বছর পর গ্রেফতার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪:৩১ |  আপডেট  : ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮:৩৫

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী এলাকার জিল্লুর রহমান হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি মো. আরিফুল ইসলামকে (৩৮) গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয় (র‌্যাব-৪)। বুধবার (১৮ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে রাজধানীর রামপুরা থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-৪-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আব্দুর রহমান এ তথ্য জানান।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার আসামি হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে। হত্যার পর থেকে সে আত্মগোপনে ছিল। গত ১১ বছর ধরে ছদ্মবেশে সাভার, আশুলিয়া, ধামরাই, গাজীপুর, বাড্ডা, রামপুরাসহ পুরান ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করে আসছিল। এ সময় গ্রেফতার আসামি ঘন ঘন পেশা ও অবস্থান পরিবর্তন করে।


র‌্যাব-৪-এর অধিনায়ক জানান, নিহত জিল্লুর এবং হত্যা মামলার আসামিরা পলাশবাড়ীর মামুদপুর গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা। তারা সর্ম্পকে আত্মীয়। ভুক্তভোগীর সঙ্গে আসামিদের জমির মালিকানা ও দখল নিয়ে দীর্ঘ দিনের বিরোধ ছিল। আসামিরা সেই জমি নিয়ে ভুক্তভোগীর পরিবারকে হত্যার হুমকিসহ বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছিল। এর পরিপ্রেক্ষিতে ২০১২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি সকালে ধান লাগানোর জন্য জিল্লুর জমিতে গেলে আসামিরা পূর্ব পরিকল্পনা মতো তাকে আক্রমণ করে।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল আব্দুর রহমান বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় আত্মীয়-স্বজনরা রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জিল্লুরকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় ভিকটিমের স্ত্রী বাদী হয়ে আরিফসহ ১২ জনকে আসামি করে পলাশবাড়ী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তিনি বলেন, আদালত মামলার বিচারকার্য পরিচালনায় স্বাক্ষ্য প্রমাণ ও উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষে জিল্লুর হত্যাকাণ্ডে সরাসরি সম্পৃক্ত থাকার অপরাধে আরিফুলকে যাবজ্জীবন সাজার আদেশ দেন। মামলা রুজু হওয়ার পর থেকে আরিফুল পলাতক ছিল। তাকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত