বাঁধ উড়িয়ে দেওয়ার ঘটনাটি ঘিরে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করছে ইউক্রেন-রাশিয়া

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৮ জুন ২০২৩, ১১:৫৬ |  আপডেট  : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ২৩:২৪

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশে ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ শুরুর পর চলমান যুদ্ধ নতুন পর্বে প্রবেশ করেছে। ইউক্রেনে রুশ দখলকৃত দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর মেলিতোপোলের মেয়ের ইভান ফেদোরভ বলছে, খেরসনে নোভা কাখোভকা বাঁধ উড়িয়ে দেওয়ার মাধ্যমে এই নতুন পর্বে প্রবেশ করলো যুদ্ধ। মার্কিন সাময়িকী নিউজউইকের এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানা গেছে।

সোভিয়েত আমলের গুরুত্বপূর্ণ এই বাঁধটি ইউক্রেনের দক্ষিণাংশের ডিনিপার নদীতে অবস্থিত। এটি কাখোভকা জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের অংশ। মঙ্গলবার সকালে বাঁধটি ভেঙে যায়। এর ফলে ইউক্রেনের নিয়ন্ত্রণে থাকা খেরসন শহরের বিশাল ভূখণ্ড পানিতে প্লাবিত হয়ে পড়েছে। রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনের সম্ভাব্য পাল্টা আক্রমণের আগে এই ঘটনা ঘটলো। এতে নদী পার হয়ে রুশ সেনাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা ডিনিপার নদীর পূর্ব তীরে আক্রমণ চালানো ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর জন্য কঠিন হতে পারে।

ইউক্রেন ও ন্যাটো বাঁধটি উড়িয়ে দেওয়ার জন্য রাশিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে। রাশিয়া পাল্টা অভিযোগ করেছে, বাঁধটি ভেঙে যাওয়ার জন্য ইউক্রেন দায়ী। ভেস্তে যাওয়া পাল্টা আক্রমণ থেকে মনোযোগ অন্যদিকে ঘুরিয়ে দিতেই এমন নাশকতা চালিয়েছে কিয়েভ।

ইউক্রেনের জাপোরিজ্জিয়া অঞ্চলের মেলিতোপোল শহরের মেয়র ফেদোরভ বলেন, এটি যুদ্ধের নতুন পর্ব। পুতিন নতুন মাত্রার আগ্রাসন চালাতে প্রস্তুত, কিন্তু আমি জানি আমাদের জিততে হবে।

তিনি বলেন, অবশ্যই আমরা প্রতিদিন সন্ত্রাসীদের–পুতিনের কাছ থেকে নতুন কিছু আসবে বলে ধারণা করি। কিন্তু এগুলো আমাদের এই বছর জয় অর্জন থেকে থামাতে পারবে না।

যুদ্ধের আগে মেলিতোপোল শহরের লোকসংখ্যা ছিল প্রায় দেড় লাখ। গত বছর ফেব্রুয়ারিতে রাশিয়ার সর্বাত্মক আক্রমণ শুরু হওয়ার প্রথম দিকে শহরটি রুশদের দখলে চলে যায়। ফেদোরভকে রুশ গোয়েন্দা সংস্থা বন্দি করে ২০২২ সালের মার্চে। ছয় দিন আটক থাকার পর বন্দিবিনিময়ে মুক্তি পান তিনি।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত