সিরাজদিখানে নিঃসন্তান অসহায় বৃদ্ধার সম্পত্তি ফিরে পেতে থানায় অভিযোগ

  সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১৯:২১ |  আপডেট  : ১১ জুন ২০২৪, ০৬:৪২

 মুন্সীগঞ্জ সিরাজদিখান কাকালদী গ্রামের নিঃসন্তান অসহায় বৃদ্ধা মাহমুদা বেগমের প্রায় পঞ্চাশ লাখ টাকার সম্পত্তি বেদখল করে নিয়েছে আলমগীর, হাফেজ, সুলতান ও মর্জিনা বেগম নামের এক প্রভাবশালী। প্রতারণার মাধ্যমে ৫০লাখ টাকার সম্পদ আত্মসাৎ করায় ওই বৃদ্ধা এখন অনাহারে অর্ধাহারে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। বর্তমানে তাকে বসতভিটা থেকেও উচ্ছেদ করতে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে প্রভাবশালীরা। তাই জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সিরাজদিখান থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন নিঃসন্তান অসহায় বৃদ্ধা মাহমুদা বেগম।

আজ সোমবার দুপুরে সিরাজদিখান বৃদ্ধা উপস্থিতিত থেকে এসব অভিযোগ করেন । অভিযোগ করে সম্পত্তি ফিরে পেতে সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন অসহায় নিঃসন্তান বৃদ্ধা মাহমুদা বেগম (৬২)। লিখিত অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, গত ২৭ বছর পূর্বে বিল্লাল শেখের কাছ থেকে মালপদিয়া মৌজার ১১ শতাংশ জমি সাবকবলা রেজিস্ট্রি করে নাম জারি করেন এবং দুই দাগে দখল দেখিয়ে জমি ভোগদখল করতে বললে কথা মোতাবেক ভোগ দখল করে চলেছে। ভোগদখল থাকা অবস্থায় প্রভাবশালী আলমগীর,হাফেজ,সুলতান,মানিক শেখ,সায়েদ,রাকিব গং ও মর্জিনা জমিসহ বেদখল করে উচ্ছেদ করার পাঁয়তারা করে আসছেন তিনি । বৃদ্ধার সব সম্পত্তি আত্মসাৎ ও বেদখলের প্রতিবাদ করায় নানাভাবে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছেন।
ভুক্তভোগীর অভিযোগ, প্রভাবশালী আলমগীর ও তার বাহিনীর অব্যাহত হুমকিতে জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এ অবস্থায় অসহায় বৃদ্ধা মাহমুদা বেগম সম্পত্তি ফিরে পেতে প্রধানমন্ত্রীসহ স্থানীয় প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছেন ।

এ বিষয়ে মোবাইল ফোনে অভিযুক্ত আলমগীরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি কারও জমি দখল করিনি। অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট বলেন তিনি। মধ্যপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল করিম বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না। সামাজিকভাবে আলোচনা করে মীমাংসার চেষ্টা করা হবে।
 

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত