জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ে গণধর্ষণ

বিচারের দাবিতে ঢাবিতে মানববন্ধন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫:৫৪ |  আপডেট  : ২১ মে ২০২৪, ১২:২১

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত জাবি ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিক সম্পাদক, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৫তম আবর্তের শিক্ষার্থী মুস্তাফিজুর রহমানসহ অন্যান্যদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানানো হয়। রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী  বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় হলো একটি জাতির আশা আকাঙ্ক্ষার জায়গা। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো এমন এক জায়গায় ধর্ষণের ঘটনা পুরো দেশের জন্য লজ্জাজনক। আমাদের বাবা মা-রা বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠান উচ্চশিক্ষার জন্য। কিন্তু এখন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর এমন অবস্থা যে সেখানে মানুষ হওয়ার কোন উপাদান অবশিষ্ট নেই। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যদি ধর্ষণের সঙ্গে যুক্ত সকলের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ না নেয় তাহলে সকলের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলব।

মানববন্ধনে বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী মোসাদ্দেক আলি ইবনে মোহাম্মদ বলেন, একাত্তরে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীরা রাজাকারের সহযোগিতায় আমাদের মা-বোনদের ধর্ষণ করে। আমরা সেই একাত্তরের প্রতিরূপ জাহাঙ্গীরনগরের এই ঘটনায় দেখতে পাই। একটা স্বাধীন দেশে এমনটা কখনও হতে পারে না। আমরা জেনেছি, ওই হলের প্রভোস্ট ওই ধর্ষককে পালিয়ে যেতে সাহায্য করেছিলেন। যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব ছিল তাদের শিক্ষার্থীদের নৈতিক শিক্ষা দেওয়া সেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আজ ধর্ষকের জন্ম দিচ্ছে। আমরা এই ধর্ষকদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানাই।

উল্লেখ্য, গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মীর মশাররফ হোসেন হলে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। অভিযুক্তরা হলেন, জাবির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমান ও বহিরাগত যুবক মামুন। মোস্তাফিজুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিক-বিষয়ক সম্পাদক। তিনি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আকতারুজ্জামান সোহেলের অনুসারী হিসেবে পরিচিত। ঘটনার পর থেকে মোস্তাফিজ ও মামুন পলাতক। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ওই নেতাকে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ। বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

সা/ই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত