আবার ঢাবি প্রশাসনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিল শিক্ষার্থী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:৪৪ |  আপডেট  : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২৩:০৬

ফাইল ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) প্রশাসনিক ভবনে বিভিন্ন ধরনের অনিয়মের অবসানসহ সব ধরনের কার্যক্রম ডিজিটালাইজেশনের দাবিতে আবার অবস্থান নিয়েছেন এক শিক্ষার্থী। একই দাবিতে গত ৩০ আগস্ট অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন তিনি। ওই দিন অবস্থান কর্মসূচি শেষে আটটি দাবি লেখা স্মারকলিপি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের কাছে জমা দেন ঢাবির ইংরেজি বিভাগের স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী হাসনাত আব্দুল্লাহ।

রবিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) প্রশাসনিক ভবনের (রেজিস্ট্রার বিল্ডিং) সামনে অবস্থান নিয়ে হাসনাত আব্দুল্লাহ জানান, আগেরবার অবস্থান নিয়ে দাবি আদায়ে তিনি যে সময় বেঁধে দিয়েছিলেন, তা শেষ হলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনও ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। এ কারণে আবারও অবস্থান নিয়েছেন তিনি। আট দফা দাবির বিষয়ে কতৃপক্ষ দৃশ্যমান পদক্ষেপ না নেওয়া পর্যন্ত এই অবস্থান কর্মসূচি চলবে। দাবিগুলোর বিষয়ে ১০ দিনের মধ্যে দৃশ্যমান পদক্ষেপ নেওয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছিল স্মারকলিপিতে।

হাসনাত আবদুল্লাহ বলেন, ‘সকাল ৯টায় অফিস টাইম হলেও ৯টা ৪০ মিনিটে রেজিস্ট্রার বিল্ডিংয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অফিসে অনুপস্থিত। সেই ছবি তুলতে গেলে রবিবার আমাকে বাধা দেওয়া হয়। রেজিস্ট্রার বিল্ডিংয়ের ছবি তোলার আগে নাকি কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিতে হয়। এই অনিয়মের শৃঙ্খলা ভাঙতে হবে। আজ থেকে আমার টানা অবস্থান কর্মসূচি চলবে।’

যে সব দাবি তোলা হয়েছে

শিক্ষক ও ছাত্র প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে অভিযোগ সেল গঠন; প্রশাসনিক সব কার্যক্রম অবিলম্বে ডিজিটাইজড করা; সব অফিসকক্ষে পর্যাপ্ত সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন; কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আধুনিক সাচিবিক বিদ্যা, পেশাদারিত্ব, মানবিক ও আচরণগত প্রশিক্ষণ আইন করে বাধ্যতামূল করা; প্রয়োজনে মনোবিজ্ঞান বিভাগ ও সেন্টারগুলোর শরণাপন্ন হতে হবে।

এছাড়া কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য স্বাস্থ্যকর ও সুন্দর কর্মপরিবেশ নিশ্চিত করা; প্রশাসনিক ভবনের ক্যান্টিনের সংস্কার করা; প্রশাসনিক ভবনের ভেতরে কর্মচারী ইউনিয়ন অফিস বাধ্যতামূলকভাবে তাদের ক্লাবগুলোয় স্থানান্তর করা; কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নির্বাচনকালীন প্রচারণায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সৌন্দর্য হানিকর ও পরিবেশ বিপর্যয়কারী অপ্রয়োজনীয় পোস্টার, লিফলেট ও ব্যানার ব্যবহার আইন করে নিষিদ্ধ করতে হবে।

প্রশাসনিক ভবনের অফিসকক্ষের দরজায় ডিজিটাল ডিসপ্লে মেশিন স্থাপন এবং ডিসপ্লেতে অফিসগুলোর নাম, কক্ষ নম্বর ও সেবার বিবরণী, কর্তব্যরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নাম-ছবিসহ প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদর্শন করা হবে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত