আদালতে আবেদন, মানুষের স্বাস্থ্যের চেয়ে আইপিএলের গুরুত্ব বেশি কেন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৪ মে ২০২১ |  আপডেট  : ১১ মে ২০২১

আইপিএল এবার সার্কাসের ঢঙে চলছে। একেক শহরে তাঁবু গাড়ছে, বেশ কদিন সে শহরে বেশ ঢাকঢোল পিটিয়ে রোশনাই করছে, আর কদিন পরে বিশাল ক্যারাভানে তল্পিতল্পা গুটিয়ে চলে যাচ্ছে অন্য কোনো শহরে। আইপিএলের ক্যারাভান এখন দিল্লিতে এসে পৌঁছেছে।

ভারতজুড়েই করোনা মহামারি প্রকট আকার ধারণ করেছে। এর মধ্যে দিল্লির পরিস্থিতি ভয়াবহ। আইপিএল ক্যারাভান দিল্লিতে পৌঁছানোর আগেই ভয়ংকর সব খবর পড়তে হয়েছে মানুষকে। হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাব নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে প্রাণ হারিয়েছেন বেশ কিছু মানুষ। এ অবস্থায় অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে মহাসমারোহে চলছে আইপিএল।

এ স্টেডিয়ামের ঠিক উল্টো দিকে লোকনায়ক জয়প্রকাশ নারায়ণ হাসপাতালের অবস্থান। দিল্লির সবচেয়ে বড় কোভিড-১৯ হাসপাতাল এটি। হাসপাতালটি এমনই সংকটে পড়েছিল যে মাঝে হাসপাতালের বেড ভাগাভাগি করতে বাধ্য করেছিল রোগীদের। এ অবস্থাতেও এত অর্থ ব্যয় করে, জরুরি চিকিৎসাসেবা আটকে রেখে আইপিএল আয়োজন নিয়ে প্রশ্ন উঠছিল নিয়মিত। এর মধ্যেই দিল্লি হাইকোর্টে আইপিএল বন্ধ করার জন্য আবেদন জানানো হয়েছে।

করোনাভাইরাস মহামারি সামলাতে পারছে না ভারত। এ অবস্থায় জরুরি ভিত্তিতে আইপিএল বন্ধ করার দাবিতে দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন করা হয়েছে। পিটিশনে জানতে চাওয়া হয়েছে, কেন জনগণের স্বাস্থ্যের চেয়ে আইপিএলকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। বর্তমান পরিস্থিতির কথা চিন্তা করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড এবং দিল্লি ও ডিস্ট্রিক্ট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনকে (ডিডিসিএ) টুর্নামেন্ট বন্ধ করতে বলা হয়েছে। আইনজীবী করণ সিং ঠুকরাল ও সমাজকর্মী ইন্দোর মোহন সিং এ আবেদন করেছেন।

এ দুজনের চোখে এ সময় আইপিএল আয়োজন অপ্রয়োজনীয়, অবিচার ও অগ্রহণযোগ্য। আবেদনে জানানো হয়েছে, ‘রাজধানীতে যেখানে সাধারণ মানুষ হাসপাতালের বিছানার জন্য হাহাকার করছে, শ্মশানের শেষকৃত্যের জন্য জায়গা পাচ্ছে না, রোগীরা অক্সিজেন সিলিন্ডার পাচ্ছে না, জরুরি ওষুধ পাচ্ছে না, তখন দিল্লিতে আইপিএল আয়োজন ভালোবাসার মানুষকে বাঁচানোর জন্য লড়তে থাকা মানুষদের মানসিক শান্তি নষ্ট করতে পারে।’

আবেদনে রাজ্য সরকার ও বিসিসিআইয়ের কাছে এ ব্যাপারে যথার্থ কারণ দর্শানোর আবেদন করা হয়েছে, ‘আয়োজনের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের কাছে জনগণের স্বাস্থ্যের চেয়ে কেন আইপিএলকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে, সেটা জানার জন্য মান্ডামাস রিট (কাউকে কিছু করতে বাধ্য করার নির্দেশ) বা অন্য কোনো উপযুক্ত রিট, আদেশ বা নির্দেশ দিন।’

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত