হেলেনা গ্রেফতারে বার্তা কী

  শরীফা বুলবুল 

প্রকাশ: ৩০ জুলাই ২০২১, ১৭:৪৫ |  আপডেট  : ৬ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮:২০

উদ্যোক্তা, সংগঠক, সমাজকর্মী ও রাজনীতিক পরিচয়ে দারুণ এক বর্ণাঢ্য জীবন গড়তে পারতেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। শুধু প্রয়োজন ছিল তার পরিমিতিবোধের। সেই সঙ্গে মনে হয় সৃজনশীল ও আত্মমর্যাদাবোধেরও দরকার ছিল। তা না করে তিনি যে ঔদ্ধত্য আর আত্মম্ভরিতার চর্চা করেছেন তা একেবারেই বেমানান। তিনি হয়তো জানতেন না রাজনীতি দুধারি ছুরির মতো ভয়ংকর। যেখানে একটুখানি বোকামি করলেই পা পিছলে নর্দমায় পড়তে হয়। এর ওপর আবার সাংবাদিকতার মতো স্পর্শকাতর বিষয়কে নিয়েও তিনি ছেলেখেলা করেছেন। তাতে তার উদ্যোক্তা পরিচয় ধূলোয় মিশে গেছে। তার জন্য সহানুভূতির চেয়ে করুণাই বেশি হচ্ছে। 

হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গ্রেপ্তার যদি কোনো বিশেষ বার্তাই হয়, তা হলে তা হওয়া উচিত আরো অনেকের জন্যই। বিশেষ করে আমাদের কোমলমতি আগামি প্রজন্মের যোগ্য হয়ে গড়ে ওঠার সূতিকাগার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কোনো গালিবাজ নেতা-নেত্রীর কোনোই প্রয়োজন নেই। তা সে যতো বড় নেতা বা মন্ত্রীর ছত্রছায়াতেই থাকুন না কেন। তাদের ছেটে ফেলা উচিত। এসব আবর্জনা যতোই দূর করা যায় ততোই পরিচ্ছন্ন হবে দলের ভাবমূর্তি। 

এখন সময় এসেছে দেশ-বিদেশে হঠাৎ গজিয়ে ওঠা রাজনীতির আগাছা আর দোকানগুলোর শাটার শাটডাউন করে দেয়ারও। সেই সঙ্গে লোভী-স্বার্থপর নেতাদের আদরে রাজনীতির শীতল ছায়ায় ঘাপটি মেরে থাকা অলি গলির বাপ, গিরগিটি, চাঁদাবাজ, টেন্ডারবাজ, সন্ত্রাসী, ধর্ষক, খুনিদের বঙ্গবন্ধুর দল থেকে লাথি মেরে বের করে দিতে হবে। তাহলেই সব সমস্যার সমাধান হবে। হেলেনা জাহাঙ্গিররাও পাবেন সুপথের সন্ধান। 

লেখকঃ কবি ও সাংবাদিক

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত