মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে শুরু শারদীয় দুর্গোৎসব

  গ্রামনগর বার্তা রিপোর্ট

প্রকাশ: ১১ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪৬ |  আপডেট  : ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০৬

সায়ংকালে চিন্ময়ী আনন্দরূপিণী দেবীর বোধন ও ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়েই শুরু হয়েছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা। করোনার অতিমারিসহ সব ধরনের অশুভ ও অমঙ্গল থেকে মুক্তি লাভই এবার দেবীর কাছে ভক্তদের প্রার্থনা।

সোমবার (১১ অক্টোবর) সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে রাজধানীর ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে মহাষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে দুর্গোৎসব শুরু হয়। সকাল থেকেই শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণীসহ সব বয়সী হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা পূজা অর্চনায় ঢাকেশ্বরী মন্দিরে আসতে থাকে। দেবীর কাছে নানা মাঙ্গলিক চাওয়া নিয়ে সনাতন ধর্মাবলম্বী প্রার্থনা করেন।

দেবীর দশমী বিহিত পূজা ও পূজান্তে দর্পণ বিসর্জন দেওয়ার মধ্য দিয়ে আগামী ১৬ অক্টোবর দুর্গোৎসব শেষ হবে। এ বছর সারাদেশে ৩২ হাজার ১১৮টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এরমধ্যে ঢাকা মহানগরে হচ্ছে ২৩৮টি পূজা।

মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কিশোর রঞ্জন মন্ডল বলেন, মায়ের কাছে আকুতি, দেশের ও দেশের জনগণের মঙ্গল কামনা। এছাড়া করোনা ভাইরাসের অতিমারি থেকে যেন দেশের মানুষসহ আমরা মুক্তি পাই।

তিনি বলেন, যথাযোগ্য ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ পরিবেশে ও শান্তিপূর্ণভাবে সবাই যেন উৎসব পালন করে। করোনা মহামারির কারণে সবাই যেন মাস্ক পড়ে স্বাস্থবিধি মেনে চলে।

এদিকে ৬ অক্টোবর ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ কুদ্দুস আলী সরকার স্বাক্ষরিত জনস্বার্থে জারি করা এক জরুরি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে করোনাকালীন দুর্গাপূজা উদযাপনে দেশের সব পূজামণ্ডপে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, প্রতিটি মন্দিরের প্রবেশপথে থাকবে সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা, প্রয়োজনে থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে তাপমাত্রা পরিমাপের ব্যবস্থাও রাখতে হবে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত