পঞ্চগড়ে ঈদে বি আরটি এ ও পুলিশের যৌথ তৎপরতা ঘটেনি সড়ক দূর্ঘটনা

  পঞ্চগড় প্রতিনিধি

প্রকাশ: ২২ জুন ২০২৪, ১৮:৪৮ |  আপডেট  : ১৭ জুলাই ২০২৪, ০১:১৬

সংশ্লিষ্টদের কঠোরতায় এবারে ঈদুল আযহায় পঞ্চগড়ের মানুষকে সড়কে মৃত্যুর মতো মর্মান্তিক দূর্ঘটনা দেখতে হয়নি। ঈদের দিনেও সড়কে বি আরটি এ ও পুলিশের তৎপরতা ছিল বেশ। পঞ্চগড়ের মহাসড়ক এবং গ্রামীণ সড়কগুলোতে দুর্ঘটনায় প্রতিবছর অনেক মানুষ মৃত্যুবরণ করে । এজন্য এই জেলাকে কে দুর্ঘটনা প্রবন  জেলা হিসেবে গন্য করা হয়। বিশেষ করে ঈদ আসলেই চলাচলে অসচেতনার জন্য প্রতিবছর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। গত ঈদুল ফিতরের সময় সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত: ৭ জন নিহত হয়। এদের মধ্যে ঈদের দিনই নিহত হয় ৪ জন। অন্যরা ঈদের দু/তিন দিনের মধ্যে মৃত্যু বরণ করে। সড়কে অতিরিক্ত গতি এবং অসচেতনতার জন্যই এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। কিন্তু এবারের ঈদুল আযহা ব্যাতিক্রম। নির্বিঘ্নে এবং সড়কে নিরাপদে ঈদের আনন্দ উদযাপন করেছে জেলাবাসী। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কতৃপক্ষের পঞ্চগড় জেলা অফিস সূত্রে জানাগেছে ঈদকে সামনে রেখে সড়ক নির্বিঘ্ন ও নিরাপদ করার জন্য ঈদের কয়েকদিন আগে থেকেই মাঠে নামে জেলা প্রশাসন, ট্রাফিক বিভাগ ও হাইওয়ে পুলিশ। বিআরটিএ এই বিশেষ অভিযানে নেতৃত্ব দেয়। পন্যবাহী যানবাহনে যাত্রী পরিবহন, ফিটনেসবিহীন যানবাহন, মহাসড়কে নসিমন করিমন, ভটভটি, থ্রি হুইলার, হেলমেটবিহীন মোটরসাইকেল,একের অধিক আরোহী নিয়ে চালিত মোটরসাইকেল ও অতিরিক্ত গতির যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা শুরু করেন তারা। এই অভিযান এখনো অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিআরটিএ কতৃপক্ষ । সংশ্লিষ্টদের এই তৎপরতা ও নির্বিঘ্ন নিরাপদ সড়কের জন্য খুশি জেলাবাসি।  পঞ্চগড়  বিআরটিএ’র  মোটরযান পরিদর্শক মো. রেজোয়ান শাহ্ জানান  আমরা রাত দিন সড়কে ছিলাম। মানুষ যাতে ঈদে নিরাপদ আনন্দ উপভোগ করতে পারে এ জন্য সংশ্লিষ্ট সবাই সচেষ্ট ছিলাম। তাই এবার দুর্ঘটনা ঘটেনি। বিআরটিএ পঞ্চগড় সার্কেলের সহকারী পরিচালক তন্ময় কুমার ধর জানান, ঈদকে সামনে রেখে আমরা বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেছি। এখনো এই অভিযান অব্যাহত আছে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত