অবৈধভাবে গড়ে উঠছে ছমিল, কাউনিয়ায় পরিবেশ হুমকির মুখে

  সারওয়ার আলম মুুকুল

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮:৩৭ |  আপডেট  : ২ মার্চ ২০২৪, ২২:৪৩

রংপুরের কাউনিয়ায় পরিবেশ অধিদপ্তরের ছারপত্র ও বৈধ লাইসেন্স ছারাই অবৈধ ভাবে গড়ে উঠেছে ৫০ টিরও বেশী ছমিল। কর্তৃপক্ষের অবহেলা ও নজরদারী অভাবে উপজেলার যত্রতত্র গড়ে উঠেছে এ সব ছমিল। ফলে পরিবেশ মারাত্বক ভাবে হুমকিতে পড়ছে। সেই সাথে উজার হচ্ছে পরিবেশ বান্ধব গাছপালা।

সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে পৌরসভা, ৬টি ইউনিয়নের বিভিন্ন হাটবাজার এবং চরাঞ্চলের বিভিন্ন গ্রামে প্রায় অর্ধশত ছমিল গড়ে উঠেছে। এর মধ্যে ৪টি ছমিলের লাইসেন্স রয়েছে বাকী গুলো ইউনিয়ন পরিষদের ট্রেড লাইসেন্স দিয়ে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। তথ্য অনুসন্ধানে দেখা গেছে এ সব ছমিল চলছে শেলো মেশিনের ইঞ্জিন অথবা বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে। ছমিল চালানোর নিয়ম নীতি মানা তো দূরের কথা এসব মিলের মালিক ও কর্মচারীরা জানেই না ছমিল চালানোর আবার নিয়ম কানুন আছে কিনা ? নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উপজেলার একজন ছমিল মালিক জানান, ছমিল স্থপনে লাইসেন্স নিতে হয় সে বিষয়ে আমার জানা নাই। তবে কিছুদিন আগে একজন সরকারী লোক এসেছিল তিনি লাইসেন্স করার কথা বলে গিয়েছেন। কিন্তু কোথায় গিয়ে লাইসেন্স করতে হবে তা আমি জানি না। তার ছমিলে কর্মরত ৪ জন শ্রমিকের সাথে কথা হলে তারা জানায়, কিভাবে দুর্ঘটনা এরিয়ে ছমিলে কাজ করতে হয় সে বিষয়ে তাদের কোন প্রশিক্ষণ নেই। সেই সাথে নেই তাদের নির্ধারীত পোশাকও। বিগত সময় ছমিলের কাটিং মাষ্টার এর সাথে যোগালীর কাজ করে করে তারাও এখন কাটিং মাষ্টারের কাজ করছে।

উপজেলায় কয়টি ছমিল আছে এ প্রশ্নের উত্তরে উপজেলা বন কর্মকর্তা আলতাব হোসেন জানান আমি তিনটি উপজেলার দায়িত্বে আছি তাই জনবল সংকটের কারনে সঠিক ভাবে তদারকি করা সম্ভব হয় না। তবে প্রায় সবগুলো ছমিল কে নোটিশ দেয়া হয়েছে লাইসেন্স করার জন্য। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মহিদুল হক জানান এ বিষয়ে বন কর্মকর্তার সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত