হারাগাছে ১১০ বছর বয়সেও খালি চোখে কোরআন পড়েন নুরন্নবী মিয়া

  সারওয়ার আলম মুকুল, কাউনিয়া (রংপুর) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১২ আগস্ট ২০২২, ১৯:২৬ |  আপডেট  : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:১৯

১১০ বছর বয়স মোঃ নুরন্নবী মিয়ার। এই বয়সে অনেকেই পত্রিকা,বই পড়াতো দুরের কথা চোখে চশমা দিয়েও চলা ফেরা করতে পারে না। অখচ এখনও খালি চোখে পবিত্র কোরআন পড়তে পারেন কাউনিয়া উপজেলা হারাগাছ পৌরসভার কসাইটারী ডাক্তারপাড়া গ্রামের মৃত নজর উদ্দিন কাগজিয়ার পুত্র মোঃ নুরন্নবী মিয়া।

সরেজমিনে নুরন্নবী মিয়ার বাড়িতে গিয়ে তার সাথে কথা বলে জানাগেছে, ভারত-পাকিস্তান বিভক্তিসহ বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ তিনি দেখেছেন। যানবাহন না থাকায় সেই সময় পায়ে হেটে ব্যবসার কাজে বিভিন্ন জায়গায় গিয়েছেন। তিনি জানান যুবক বয়সে তিনি যে সব খাবার খেতেন সবই ছিল ভেজাল মুক্ত। বাড়ির গরুর দুধ, ডিম, আবাদের সবজি, পুকুরের মাছ, সরিষার তেল, ঢেকিছাটা চাউলের ভাত খেতেন। এখন সবই ভেজাল। তার রোগ বালাই নেই বল্লেই চলে, মাঝে মধ্যে জর সর্দি হয়। সম্প্রতি রিক্সা থেকে পড়ে নাক ফেটে কয়েকদিন কষ্ট করেছেন। ব্যাক্তিগত জীবনে তিনি ৬ ছেলে ও ৪ মেয়ের জনক। জাতীয় পরিচয় পত্র অনুযায়ী তার জন্ম তারিখ ২১ নভেম্বর ১৯১০ সাল। ৬০ বছর হলেই আমাদের দেশের মানুষ মৃত্যুর প্রহর গুনতে শুরু করে। শুরু হয় নানা রোগবালাই। অনেকে হাটার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। কিন্ত তিনি এখনও প্রতিদিন ফজরের নামাজ শেষে খালি চোখে পবিত্র কোরআন পড়েন। তিনি জানান কোরআন পড়েন বলেই হয়তো আল্লাহ তাকে এখনও খালি চোখে সব কিছু দেখার শক্তি দিয়েছেন। তার চোখে কোন সমস্যা নেই তবে এখন কানে কম শুনেন। তিনি  নিয়মিত নামাজ আদায় করেন। 

তার ভাতিজা মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ জানান, আমার বরবা  (জেঠা) এর বয়সের কোন মানুষ আর হারাগাছে নেই। এই বয়সে খালি চোখে কোরআন পড়ার তিনি মনে হয় একমাত্র দৃষ্টান্ত। তার চলা ফেরায় রয়েছে বেশ সতেজতা। তাই শতবর্ষি মানুষটি হারাগাছে আলোচিত ব্যাক্তি হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন। 

 

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত