হজে গিয়ে ৪৮ বাংলাদেশির মৃত্যু, ফিরেছেন ১৯,৪৩৯ জন‌

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৬ জুন ২০২৪, ১১:১৭ |  আপডেট  : ১৬ জুলাই ২০২৪, ১৬:৩৮

হজ পালন করতে সৌদি আরবে গিয়ে এখন পর্যন্ত ৪৮ জন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। আর পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা শেষ দেশে ফিরছেন ১৯ হাজার ৪৩৯ জন হাজি। মঙ্গলবার (২৫ জুন) হজ সম্পর্কিত সবশেষ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ হজ অফিস ঢাকা এবং সৌদি আরব সূত্রে এ তথ্য জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজ হেল্প ডেস্ক।

হেল্প ডেস্কের তথ্যমতে, বুধবার সকাল পর্যন্ত ৫১টি ফ্লাইটে দেশে ফিরেছেন ১৯ হাজার ৪৩৯ জন হাজি। এরমধ্যে বাংলাদেশ বিমান পরিচালনা করেছে ১৩টি, সৌদিয়া এয়ার লাইন্স ২০টি ও ফ্লাইনাস এয়ার ১৮টি ফ্লাইট পরিচালনা করেছে। হাজিদের নিয়ে শেষ ফ্লাইটটি দেশে আসবে আগামী ২২ জুলাই।

চলতি বছর হজ করতে গিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ ও অসহনীয় গরমের কারণে সৌদি আরবের মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৩০০ জনের বেশি। এর মধ্যে এখন পর্যন্ত ৪৮ জন বংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।‌ হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরুর আগেই ১৭ জন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়।

তবে হজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি শাহাদাত হোসেন তছলিম জানিয়েছেন, হজ করতে গিয়ে এখন পর্যন্ত ৫০ জন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজ সম্পর্কিত বুলেটিনে ৪৮ জন মারা যাওয়ার যে তথ্য জানানো হয়েছে তার মধ্যে ৩৬ জন পুরুষ ও ১২ জন নারী। তাদের ৩৭ জন মক্কায়, চারজন মদিনায়, ছয়জন মিনায় এবং জেদ্দায় একজন মারা গেছেন।

হজ ডেস্কের তথ্যমতে, হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরুর আগে সর্বশেষ গত ১২ জুন সৌদিতে দুই বাংলাদেশি মারা যান। তারা হলেন- মো. শাহ আলম (৭৭) ও সুফিয়া খাতুন (৬২)। তাদের বাড়ি যথাক্রমে কুমিল্লা ও কিশোরগঞ্জ। চলতি হজ মৌসুমে সৌদি আরবে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে গত ১৫ মে মো. আসাদুজ্জামান নামে এক হজযাত্রী মারা যান।

সৌদি আরবের আইন অনুযায়ী, কোনো ব্যক্তি হজ করতে গিয়ে যদি মারা যান, তাহলে তার মরদেহ সৌদি আরবে দাফন করা হয়। নিজ দেশে আনতে দেওয়া হয় না। এমনকি পরিবার-পরিজনের কোনো আপত্তিও গ্রহণ করা হয় না। মক্কায় হজযাত্রী মারা গেলে মসজিদুল হারামে জানাজা হয়।

 

সা/ই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত