সরকারি চাকরিজীবীদের ভাতার হার পুনর্নির্ধারণ

  গ্রামনগর বার্তা রিপোর্ট

প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০২২, ০৯:৪০ |  আপডেট  : ১৫ আগস্ট ২০২২, ০০:৪৩

সরকারি ব্যয় কমাতে বিদেশ ভ্রমণ বন্ধসহ বিভিন্ন ধরনের সিদ্ধান্ত এরইমধ্যে কার্যকর করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবার বেসামরিক প্রশাসনের আওতাধীন দেশের সব সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দৈনিক ভাতা, ভ্রমণ ভাতা ও বদলিজনিত ভ্রমণ ভাতার হার পুনর্নির্ধারণ করেছে সরকার।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ গত বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, ক্যাটাগরি-১-এর আওতাভুক্ত গ্রেড-১ ও তদূর্ধ্বদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ হচ্ছে ১ হাজার ৪০০ টাকা; গ্রেড-২ ও গ্রেড-৩ আওতাভুক্তদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ ১ হাজার ২২৫ টাকা এবং গ্রেড-৪ ও গ্রেড-৫ ভুক্তদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ ১ হাজার ৫০ টাকা।

ক্যাটাগরি-২ এর আওতাভুক্ত গ্রেড-৬ ও গ্রেড-৭ ভুক্তদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ ৯০০ টাকা এবং গ্রেড-৮ থেকে গ্রেড-১০ ভুক্তদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ ৮৭৫ টাকা।

ক্যাটাগরি-৩ এর আওতাভুক্ত গ্রেড-১১ থেকে গ্রেড-১৩ ভুক্তদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ ৭০০ টাকা এবং গ্রেড-১৪ থেকে গ্রেড-১৬ ভুক্তদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ ৪৯০ টাকা। এছাড়া ক্যাটাগরি-৪ এর আওতাভুক্ত গ্রেড-১৭ থেকে গ্রেড-২০ ভুক্তদের দৈনিক ভাতার পরিমাণ ৪০০ টাকা।

ভ্রমণের (বিমান/লঞ্চ/স্টিমার/সড়ক/রেলপথ) ক্ষেত্রে ক্যাটাগরি-১ (১ম থেকে পঞ্চম গ্রেড) ভুক্তরা বিমানে ভ্রমণের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোমিটার ৩০ টাকা হারে এবং বিমান ব্যতীত ভ্রমণের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোমিটার ১৮ টাকা হারে ভাতা পাবেন।

বিমানে ভ্রমণের ক্ষেত্রে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, এক্ষেত্রে গন্তব্যস্থলের সঙ্গে বিমান বন্দরের অবস্থান বাস্তবভিত্তিক ও যুক্তিসঙ্গত হতে হবে।

ভ্রমণের ক্ষেত্রে ক্যাটাগরি-২ (৬ষ্ঠ থেকে ১০ম গ্রেড) ভুক্তরা ২০০ কিলোমিটার ও তদূর্ধ্ব দূরত্বের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোমিটার ১২ টাকা হারে এবং ২০০ কিলোমিটার কম দূরত্বের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোমিটার ১৫ টাকা হারে ভাতা পাবেন।

ক্যাটাগরি-৩ (১১ থেকে ১৬ গ্রেড) ও ক্যাটাগরি-৪ (১৭ থেকে ২০ গ্রেড) ভুক্তরা ২০০ কিলোমিটার ও তদূর্ধ্ব দূরত্বের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোমিটার ৬ টাকা হারে এবং ২০০ কিলোমিটার কম দূরত্বের ক্ষেত্রে প্রতি কিলোমিটার ৮ টাকা হারে ভাতা পাবেন।

চাকরি বদলিজনিত কারণে সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা নিজেরসহ সর্বোচ্চ চারজনের ভ্রমণ ভাতা পাবেন।

এছাড়া মালামাল পরিবহনের জন্য ক্যাটাগরি-১ ভুক্তরা একা ভ্রমণের ক্ষেত্রে ১ হাজার ৫০০ টাকা ও সপরিবারে ভ্রমণের ক্ষেত্রে ৩ হাজার টাকা এবং প্রতি কিলোমিটার দূরত্ব ৫০ টাকা হারে; ক্যাটাগরি-২ ভুক্তরা একা ভ্রমণের ক্ষেত্রে ১ হাজার ২০০ টাকা ও সপরিবারে ভ্রমণের ক্ষেত্রে ২ হাজার ৫০০ টাকা এবং প্রতি কিলোমিটার দূরত্ব ৪৫ টাকা হারে; ক্যাটাগরি-৩ ভুক্তরা একা ভ্রমণের ক্ষেত্রে ৮০০ টাকা ও সপরিবারে ভ্রমণের ক্ষেত্রে ২ হাজার টাকা এবং প্রতি কিলোমিটার দূরত্ব ২০ টাকা হারে; ক্যাটাগরি-৪ ভুক্তরা একা ভ্রমণের ক্ষেত্রে ৫০০ টাকা ও সপরিবারে ভ্রমণের ক্ষেত্রে ৬০০ টাকা এবং প্রতি কিলোমিটার ৮ টাকা হারে ভাতা পাবেন।

প্রজ্ঞাপনে ভাতার পরিমাণ/হার নির্ধারণে ১ম গ্রেড থেকে ২০তম গ্রেডের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চারটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয়েছে। এর মধ্যে ক্যাটাগরি-১-এর আওতায় রয়েছেন ১ম থেকে পঞ্চম গ্রেডের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা, ক্যাটাগরি-২-এর আওতায় ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম গ্রেডভুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী, ক্যাটাগরি-৩-এর আওতায় ১১ থেকে ১৬ শ’ গ্রেডভুক্ত কর্মচারী এবং ক্যাটাগরি-৪ এর আওতায় রয়েছেন ১৭ থেকে ২০তম গ্রেডের কর্মচারীরা।

এছাড়া প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, বিমানযোগে ভ্রমণের ক্ষেত্রে গন্তব্যস্থলের সঙ্গে বিমানবন্দরের অবস্থান বাস্তবভিত্তিক ও যুক্তিসঙ্গত হতে হবে। কর্মস্থলে নিয়মিত যাতায়াতকে ভ্রমণ হিসেবে গণ্য করে ভ্রমণ ভাতা দাবি করা যাবে না।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত