মুস্তাফিজের অনুপস্থিতি হাড়ে হাড়ে টের পেল ধোনির চেন্নাই

  স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশ: ১৯ মে ২০২৪, ১৩:৪৪ |  আপডেট  : ২২ জুন ২০২৪, ১৬:৪২

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংসের এবারের আসরের মিশন শেষ হয়েছে। এবার আর প্লে-অফ নিশ্চিত করতে পারেনি তারা। শনিবার রাতে (১৮ মে) বেঙ্গালুরুর চিন্নস্বামীতে নিজেদের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে হেরে ছিটকে পড়েছে চেন্নাই। এমন দিনে বাংলাদেশের তারকা পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের অনুপস্থিতি যে হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

ম্যাচটিতে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর কাছে হারলেও চেন্নাই কাছে সুযোগ ছিল প্লে-অফে যাওয়ার। সেক্ষেত্রে তাদের করতে হতো ২০১ রান। শেষ পর্যন্ত ১৯১ রানে থেমে যায় চেন্নাইয়ের ইনিংস। প্লে অফে ওঠার আনন্দে ফেটে পড়ে বেঙ্গালুরু। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে টস হেরে প্রথমে ব্যাটিং পায় বেঙ্গালুরু। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে করে ২১৯ রান। শেষ ৫ ওভারেই নিয়েছে ৮১ রান।

অথচ এই বেঙ্গালুরুর বিপক্ষেই টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম ম্যাচে চেন্নাইয়ের হয়ে ৪ উইকেট নিয়েছিলেন মুস্তাফিজ। ম্যাচটিতে ৬ উইকেটের জয় পায় চেন্নাই। বাংলাদেশের বাঁহাতি পেসারের এটা ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। ফাফ ডু প্লেসি, বিরাট কোহলি, রজত পাতিদার, ক্যামেরন গ্রিন-চার ব্যাটারকে ফিরিয়ে তখন বেঙ্গালুরুর বড় স্কোর গড়ার ভিত তখন নষ্ট করেন ফিজ।

গত ১ মে পর্যন্ত আইপিএল খেলার অনুমতি পাওয়ায় চেন্নাইয়ের শেষ চার ম্যাচে খেলা হয়নি মুস্তাফিজের। রুতুরাজ গায়কোয়াড়ের নেতৃত্বাধীন চেন্নাইয়ের আরেক পেসার মাথিসা পাতিরানা চোটে পড়ায় তাকেও লিগ পর্বের শেষে পায়নি চেন্নাই। পাতিরানা-মোস্তাফিজ চেন্নাইকে এবার বাঁচিয়েছেন বারবার। বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে রুতুরাজ বলেন, ‘পাতিরানা চোটে পড়ল। ফিজকেও আমরা মিস করেছি।’

চেন্নাইয়ের ২০২৩ আইপিএল জিততে অসামান্য অবদান ছিল ডেভন কনওয়ের। দলের সর্বোচ্চ রানসংগ্রাহক (৬৭২ রান) ছিলেন তিনি। ফাইনালে হয়েছিলেন ম্যাচসেরা। শিরোপা রক্ষার মৌসুমে এবার কনওয়েকে পায়নি চেন্নাই। চোটে পড়ায় টুর্নামেন্টে এবার একটা ম্যাচও খেলতে পারেননি নিউজিল্যান্ডের তারকা ব্যাটার। রুতুরাজ বলেন, ‘চোটে পড়ায় কনওয়েকে পায়নি। এটা অনেক পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। প্রথম ম্যাচ থেকেই চ্যালেঞ্জ ছিল। যখন দলে চোট থাকে, তখন দলে ভারসাম্য আনা কঠিন হয়ে যায়।’

 

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত