ভ্রমণ শুধুমাত্র আনন্দের জন্য নয়

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৯ নভেম্বর ২০২২, ১৫:৪৯ |  আপডেট  : ২০ মে ২০২৪, ১৮:২৩

আমরা দৈনন্দিন কাজের চাপে দৈহিক এবং মানসিক ভাবে বিষন্নতা অনুভব করি এবং  দুর্বল হয়ে পড়ি।  এই দুর্বলতা কাটানোর জন্য ভ্রমণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ  চিকিৎসা।  প্রকৃতির ছন্নছায়া সবুজ শ্যামলী গাছপালার  রং বেরঙের পশু পাখি, ফুল, নদী নালা পাহাড় পর্বত এর কাছে যেতে পারলেই আমাদের দেহ এবং মনের প্রশান্তি ঘটে।

স্মৃতিশক্তি ও জ্ঞানঅর্জনে ভ্রমনের গুরত্ব, উপকারিতা
বিভিন্ন যুক্তিবিদ, শিক্ষাবিদ, মনীষী ও জ্ঞানীদের মতানুসারে জ্ঞানের জন্য ভ্রমণের প্রয়োজন আছে। জ্ঞান অর্জনে ভ্রমণ সমাজের বিশিষ্ট ব্যাক্তিগন সাহিত্যিক,শিল্পী,শিক্ষক, শিক্ষিকা,বাঙালির ভ্রমণ  পিপাসু হয়ে থাকেন জ্ঞানর্জন করার জন্য।  শিক্ষার কোনো শেষ নেই প্রতিটি মানুষ জীবনের শেষ পর্যন্ত শিক্ষার্থী হয়ে থাকে,ছাত্র জীবনে সফল হওয়ার উপায় খুঁজে পাবেন। 

তাই প্রকৃতির কাছে শিক্ষার শেষ নেই।  আমরা নদীর কাছে শিখতে পারি কেউ সাথে থাকুক বা না থাকুক আপন কাজে নিজের এগিয়ে যেতে হয় , যত কঠিন বাধা আসুক না কেন নদী যেমন এগিয়ে যায়। তাই ভ্রমণ পিপাসু বিশ্ববরণ্য বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তানার  লেখা "সবার আমি ছাত্র " কবিতা পড়লে বুঝতে পারবেন প্রকৃতির কাছে কত কিছু শিক্ষা নেয়া যায়। স্মৃতিশক্তি ও জ্ঞানার্জনে ভ্রমণের উপকারিতা, ভ্রমণের গুরুত্ব, ভ্রমণের প্রয়োজনীয়তা আছে।

নতুন বন্ধু ও ভাষাগত দক্ষতা শেখায়
শিক্ষামূলক ভ্রমণের গুরুত্ব আপনি যত জায়গায় ঘুরবেন তত বেশি মানুষজন এবং জায়গার সাথে পরিচিত হতে পারবেন, আপনার যোগাযোগের দক্ষতা বৃদ্ধি পাবে, নতুন নতুন ভাষা শিখতে পারবেন, নতুন কালচার, রীতি, নীতি, শিখতে পারবেন। অন্য মানুষের মন মানসিকতা বোঝার মতো ক্ষমতা তৈরী হবে। দেখবেন আপনার জীবনে সফলতা পাবেন কেবলমাত্র এই যোগাযোগের ভাষাগত দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য।


নিজেকে সাহসী ও আত্মবিশ্বাসী করে তোলে
আমাদের জীবনে প্রত্যেকের  সাহসী এবং আত্মবিশ্বাসী হওয়াটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। সফলতার শীর্ষে পৌঁছানোর জন্য অসীম সাহসের প্রয়োজন হয়ে পড়ে। কারণ সিংহ বনের রাজা হতে পেরেছে কেবলমাত্র তার মনের আত্মবিশ্বাস ও সাহসিকতার জন্য। বনে তো আরও অনেক শক্তিশালী যন্ত্রু জানোয়ার আছে, কিন্তু তাদের সাহসে কুলোয় না বনের রাজা হওয়ার জন্য। আপনি যদি দেশ বিদেশ ভ্রমণ করেন আপনার মনের সাহস, আত্মবিশ্বাস, অনেকটাই বেড়ে যাবে, ভ্রমণের অভিজ্ঞতার  মাধ্যমে  আপনি আপনার জীবনে সফলতা পাবেন। 

জীবনে সুখী হওয়া যায়
প্রতিটি মানুষ মনে প্রাণে আশা করে জীবনে কিভাবে সুখী হওয়া যায় ? আমি আপনাকে বলবো কম খরচে ঘোরার জায়গা, খুঁজে ঘুরে আসুন।  ঐতিহাসিক স্থান ভ্রমণের উপকারিতা, আপনি কতটা আনন্দ সুখানুভুতি অনুভূতি আসে বুঝতে পারবেন। ভ্রমণের উপকারিতা, আপনি ঘুরতে পারলে জীবনে সুখী হওয়া যায়। 

ডিপ্রেশন থেকে মুক্তি পাওয়া যায়
এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে ভ্রমণের উপকারিতায় মানুষ ডিপ্রেশন থেকে মুক্তি পায়। আপনার পরিচিত জানা শোনা জায়গা থেকে বেরিয়ে দূরে কোথাও গেলে নতুন নতুন মানুষের সাথে চেনা জানা হয় নতুন নতুন কিছুর সাথে পরিচিত হওয়া যায় তখন ডিপ্রেশন থেকে মুক্তির উপায় পাওয়া যায়।

নিজে থেকে সমস্যা সমাধান করতে পারবেন
জীবন মানে সমস্যা সবারই জীবনে থাকবে আর আপনি যত বেশি ভ্রমণ করবেন তত বেশি সমস্যার  সম্মুখীন হবেন, দেখবেন সব সমস্যা আপনি নিজে থেকে সমাধান করতে পারছেন। এই ভাবে আপনার জীবনে যত ধরণের সমস্যা আসবে  সব কিছু সমাধান হয়ে যাবে।

নিজেকে বুঝতে শিখে যাবেন
আমাদের জীবনে ভালো অভ্যাসের মধ্যে একটি হলো নিজেকে সময় দেয়া এবং নিজেকে বুঝতে শেখা ।  আপনি যদি ভ্রমণের উদ্দেশ্যে  ঘুরতে বের  হন আপনার চাহিদা কি আপনার মন কি চায় এগুলি সম্বন্ধে অবগত হবেন নিজের সম্বন্ধে অনেক কিছু জানতে পারবেন।

সু-স্বাস্থ্যের জন্য
অনেক সময় বাড়িতে কাজের চাপে এক ঘেয়েমির কারণে  মনের  দিক দিয়ে দুর্বল হয়ে পড়ি। শরীরে অনেক রোগের বাসা ঘর হয়।  ডাক্তাররা ও অনেক সময় হাওয়া বদলের জন্য ঘুরতে যেতে বলে এতে রোগ নিরাময় হয়।  তাছাড়া আপনি নদী পাহাড়বর্তী এলাকায় ঘুরতে যান এখানকার হাওয়া দূষণমুক্ত যা সু-স্বাস্থ্যের  জন্য খুবই প্রয়োজনীয়।

ভবিষ্যত গঠনে ভ্রমণের প্রয়োজনীয়তা
ভ্রমণের উপকারিতা আপনার ভবিষ্যত গঠন হবে কারণ , আপনি নতুন কিছু আবিষ্কার করতে পারবেন নিজের কর্মদক্ষতা বুঝতে পারবেন, সঠিক পরিকল্পনা করতে পারবেন যা আপনার ভবিষ্যত গঠনের জন্য এক ধাপ এগিয়ে যাবেন।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত