`গ্লেনরিচ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল’র ব্র্যান্ড ও লোগো উন্মোচন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২১ নভেম্বর ২০২২, ১৯:০৭ |  আপডেট  : ২৬ নভেম্বর ২০২২, ০২:১৬

ক্রমবর্ধমান শিক্ষার চাহিদা মেটাতে এবং শিক্ষার্থীদের প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বের জন্য প্রস্তুত করার লক্ষ্যে এসটিএস গ্রুপ বাংলাদেশে ‘গ্লেনরিচ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল’ নামের একটি প্রিমিয়াম স্কুল চালু করেছে। সোমবার (২১ নভেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে স্কুলটির ব্র্যান্ড ও লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।  

অনুষ্ঠানের উপস্থিত ছিলেন- এসটিএস গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক খন্দকার মনির উদ্দিন, এসটিএস এডুকেশন এর সিইও মানষ সিং, গ্লেনরিচ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রিন্সিপাল রমেশ মুডগা এবং এসটিএস গ্রুপের বোর্ড মেম্বার ও সিনিয়র লিডারশিপ টিমের সদস্যরা।

এসটিএস গ্রুপের সিইও মানষ সিং বলেন, ‘আন্তর্জাতিক মানের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে বাংলাদেশে ১৯৯৭ সালে এসটিএস গ্রুপের যাত্রা শুরু হয়। আমাদের প্রতিশ্রুতির ধারাবাহিকতায় আমরা গ্লেনরিচ ইন্টারন্যাশনাল নামে নতুন একটি স্কুল চালু করেছি, যা সুষ্ঠু পরিবেশের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ২১ শতকের শিক্ষা প্রদানের বিষয়টি নিশ্চিত করবে।’

এ প্রসঙ্গে গ্লেনরিচ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল’র প্রিন্সিপাল রমেশ মুডগাল বলেন, ‘স্কুল অব লাইফ’ ধারণা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে গ্লেনরিচ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল শুধুমাত্র শিক্ষার্থীদের শিক্ষা প্রদানের জন্য একটি উন্নত পরিবেশ তৈরির চেষ্টাই করবে না; পাশাপাশি, এটি শিক্ষার্থীদের মধ্যে নৈতিক মূল্যবোধ ও সততা জাগিয়ে তুলবে, যাতে তারা সত্যিকার অর্থে ভবিষ্যত জীবনের জন্য প্রস্তুত হতে পারে। এ মহৎ উদ্দেশ্য সম্পন্ন করার জন্য গ্লেনরিচ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ভালো শিক্ষক তৈরির গুরুত্বও তুলে ধরবে, যা  শিক্ষার্থীদের একটি সমৃদ্ধ ভবিষ্যতের জন্য জীবন দক্ষতা অর্জনে সহায়তা করবে বলে আমি মনে করি।’

গ্লেনরিচ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এসটিএস গ্রুপের (দেশের অন্যতম বৃহৎ কর্পোরেট গ্রুপ) নতুন একটি উদ্যোগ; যারা স্বাস্থ্যসেবা ও শিক্ষা খাতের মান উন্নয়নে নিষ্ঠার সাথে কাজ করছে। এসটিএস গ্রুপ এমন প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে, যা মানুষের জীবনমানের ওপর ইতিবাচক ও টেকসই প্রভাব ফেলবে। প্রতিষ্ঠানটির প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে, এসটিএস গ্রুপ এবার গ্লেনরিচ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল চালু করেছে, যা কেমব্রিজ পাঠ্যক্রম অনুসরণ করবে।

‘স্কুল অব লাইফ’ ধারণা দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে একটি অভূতপূর্ব এবং সমন্বিত শিক্ষার অভিজ্ঞতা প্রদানের জন্য এই স্কুলটি বিশেষ কার্যক্রম পরিচালনা করবে। শিক্ষার্থীদের জন্য দেশে প্রথমবারের মতো এ স্কুলটি বিভিন্ন প্রোগ্রাম চালু করেছে। এগুলো হলো: স্টেমরোবো’র সহযোগিতায় রোবোটিক্স অনুমোদিত পাঠ্যক্রম, ম্যাথবাডি’র সহযোগিতায় ম্যাথ ল্যাব, যুক্তরাজ্যের রয়্যাল স্কুল অব মিউজিকের অ্যাসোসিয়েটেড বোর্ড কর্তৃক স্বীকৃত মিউজিক, বিউমন্ট কর্তৃক স্বীকৃত অত্যাধুনিক সুবিধা এবং আলিয়ঁস ফসেজ ডো ঢাকা কর্তৃক ফরাসি ভাষার ওপর সার্টিফিকেশন। এছাড়াও, স্কুলটিতে অন্যান্য সুবিধাও প্রদান করবে। এগুলো হলো: সবগুলো শ্রেণিকক্ষে ওয়াইফাই সুবিধা, ভয়েস রেকর্ডিং সহ সিসিটিভি কাভারেজ, বাচ্চাদের বাবা-মায়ের জন্য লাউঞ্জ, খেলার জন্য বিশেষ স্থান (অত্যাধুনিক ও বিশ্বমানসম্পন্ন), সংযুক্ত কোলাবোরেটিভ রুম, বিনোদনের জন্য বিশেষ এলাকা এবং শিক্ষার্থীদের বয়স অনুযায়ী ডিজাইনকৃত শ্রেণিকক্ষ। এ সব ব্যতিক্রমী ফিচারগুলো এ স্কুলটিকে বিশেষত্ব দিয়েছে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত