কলাম্বাসের দ্বিতীয় সমুদ্রযাত্রা এবং অ্যান্টিগুয়া

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১০ নভেম্বর ২০২২, ১০:৪৪ |  আপডেট  : ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০১:১৫

অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ক্যারিবীয় সাগরের পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত একটি স্বাধীন দ্বীপরাষ্ট্র। রাষ্ট্রটি মূলত লিওয়ার্ড দ্বীপপুঞ্জের মধ্যভাগে অবস্থিত তিনটি প্রতিবেশী দ্বীপ অ্যান্টিগুয়া, বার্বুডা এবং রেডন্ডা নিয়ে গঠিত। দ্বীপগুলি বিষুবরেখা থেকে প্রায় ১৭ ডিগ্রি উত্তরে অবস্থিত।

ক্যারিবীয় দেশগুলির মধ্যে অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা তুলনামূলকভাবে অর্থনৈতিকভাবে বেশি সমৃদ্ধ। দ্বীপগুলিতে প্রতি বছর লক্ষ লক্ষ পর্যটক বেড়াতে আসেন, এবং দেশটির অর্থনীতি পর্যটনের উপর নির্ভরশীল। অ্যান্টিগুয়ার সমুদ্রসৈকতের সৌন্দর্য বিখ্যাত। দক্ষিণ ক্যারিবীয় সাগরে পরিভ্রমণকারী বিলাসভ্রমণ জাহাজগুলি প্রায়ই অ্যান্টিগুয়াতে নোঙর ফেলে। বার্বুডা ও অ্যান্টিগুয়ার আশেপাশে প্রচুর প্রবাল প্রাচীর ও ডুবে যাওয়া জাহাজের অবশেষ আছে, ফলে এখানে পানিতে ঝাঁপ দেয়া ও ডুবসাঁতার কাটা বিনোদনের অন্যতম উপায়। তাছাড়া কডরিংটন লেগুনবারবুডা দ্বীপের পশ্চিম অংশে প্রচুর গুহা এবং সামুদ্রিক পাখির বড় উপনিবেশের কারণে স্পিলিওলজি এবং পক্ষীবিদ্যায় আগ্রহীদের আকর্ষণ করে।

এই বিস্ময়কর দ্বীপগুলি কলম্বাস নিজেই ম্যাপ করেছিলেন ১৭৯৩ সালে, যখন তিনি দ্বিতীয়বার আমেরিকায় আসেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অঞ্চলের দেশটি লেসার অ্যান্টিলিসের অন্তর্গত তিনটি দ্বীপ নিয়ে গঠিত। এগুলি হল অ্যান্টিগুয়া, বারবুডা এবং রেডোন্ডা। তাদের মোট এলাকা ৪৪১ বর্গ মিটার। কিমি তাদের উপকূলগুলি কয়েক ডজন সবচেয়ে মনোরম উপসাগর দ্বারা কাটা হয়েছে, যেখানে রিফ বাধার কারণে সুরক্ষার জন্য সামুদ্রিক ঝড় পৌঁছাবে না।

১৬৩২ সাল থেকে ১৯৮১ সালে স্বাধীনতা লাভের আগে পর্যন্ত দ্বীপগুলি ব্রিটিশ উপনিবেশ ছিল। এখানকার সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগণ আফ্রিকা থেকে আনা দাস ও তাদের বংশধর। এদেরকে তুলা ও আখের প্ল্যান্টেশনে কাজ করানোর জন্য নিয়ে আসা হয়েছিল। দ্বীপগুলির সংস্কৃতিতে আফ্রিকান, পশ্চিম ভারতীয় এবং ব্রিটিশ প্রভাবের মিশ্রণ ঘটেছে।

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত