আইসিইউতে আছেন প্রথম পতাকার নকশাকার শিব নারায়ণ দাশ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৪১ |  আপডেট  : ২১ মে ২০২৪, ১৬:৫৬

স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকার নকশাকারদের একজন শিব নারায়ণ দাশ শ্বাসকষ্ট নিয়ে রাজধানীর একটি হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি হয়েছেন। 

তার শারিরীক পরিস্থিতি এখন উন্নতির দিকে বলে জানিয়েছেন শমরিতা হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক।

ঢাকার মনিপুরী পাড়ায় বসবাসরত ৭৭ বছর বয়সী শিব নারায়ণ সোমবার রাতে বেশ অসুস্থ হয়ে পড়লে ১টার দিকে তাকে ওই হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়। ডা. রাজশীষ চক্রবর্তীর তত্ত্বাবধানে তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

মঙ্গলবার শমরিতা হাসপাতালের আইসিইউ’র কর্তব্যরত চিকিৎসক আদনান ফয়সাল বলেন, “প্রয়োজনীয় চিকিৎসা শেষে এখন তিনি ভালো আছেন। আশা করি শারীরিক অবস্থার আরও ভালো হবে। আগামীকাল তাকে ছাড়পত্র দেওয়া যাবে।” 

দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ এ মুক্তিযোদ্ধা রাজধানীর মনিপুরী পাড়ায় বসবাস করছেন। তিনি শ্বাসকষ্টে ভুগছেন বেশ ক’বছর ধরে। 

সবশেষ করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে অসুস্থ শিব নারায়ণ দাশ পরিবার নিয়ে সংকটে পড়েন বেশ। তখন পরিবারের জন্য সহায়তায় একটি প্লাটফর্ম থেকে উদ্যোগও নেওয়া হয়।

শিব নারায়ণের তৈরি করা বাংলাদেশের মানচিত্র সম্বলিত এই পতাকা ধরেই হয়েছিল স্বাধীনতার সংগ্রাম। ১৯৭১ সালের ২ মার্চ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে প্রথম বাংলাদেশের পতাকা ওড়ানো হয়েছিল। 

লাল-সবুজের ভেতরে হলুদ রঙে বাংলাদেশের মানচিত্র সম্বলিত ওই পতাকার নকশা যারা করেছিলেন, তাদের একজন সে সময়ের ছাত্রলীগ নেতা শিব নারায়ণ দাশ। 

১৯৭০ সালের ৬ জুন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন ইকবাল হলের (বর্তমান সার্জেন্ট জহুরুল হক হল) ১১৮ নম্বর কক্ষে বসে ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী ওই পতাকার নকশা তৈরি করেছিলেন ‘জয়বাংলা বাহিনীর’ জন্য। 

স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালে সরকার শিল্পী কামরুল হাসানকে পতাকার বিষয়ে একটি প্রতিবেদন দিতে বলে। কামরুল হাসান মানচিত্র সম্বলিত ওই লাল-সবুজ পতাকা থেকে মানচিত্র বাদ দিয়ে যে পতাকার নকশা করেন সেটিই এখন বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা।

 

সান

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত