যুক্তরাষ্ট্রে টর্নেডোর তাণ্ডব : মৃত্যু ২২, লাখ লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২ এপ্রিল ২০২৩, ১০:১৫ |  আপডেট  : ১৭ জুন ২০২৪, ২২:০১

যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য-পশ্চিমাঞ্চলের কিছু অংশে কয়েকদিন ধরে ধারাবাহিক টর্নেডোর আঘাতে ক্ষয়ক্ষতি ও প্রাণহানি বাড়ছে। এখন পর্যন্ত ২২ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। আরকানসাস, আলাবামা, টেনেসি, মিসিসিপিসহ কয়েকটি রাজ্যে অনেকে ঘর-বাড়ি হারিয়ে ঠাঁই হয়েছে খোলা আকাশের নিচে। বহু মানুষ বিদ্যুৎহীন অবস্থায় রয়েছে।

কয়েকদিন ধরেই যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য-পশ্চিমাঞ্চলের কিছু অংশে টর্নেডো থেমে থেমে আঘাত হানছে। টর্নেডো আঘাত হানবে, এমন পূর্ভাবাস আগেই দিয়েছিল মার্কিন আবহাওয়া বিভাগ। শনিবার রাতেও অনেক জায়গায় টর্নেডোর আঘাতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। আরকানসাস অঙ্গরাজ্যে শক্তিশালী ঝড়ে গাড়ি  উল্টানো, গাছ উপড়ে পড়া এবং বিদ্যুৎ লাইন ভেঙে পড়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে ভোগান্তি চরম মাত্রায় পৌঁছেছে সেখানকার  বাসিন্দাদের। এই রাজ্যে পাঁচ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া টেনেসি অঙ্গরাজ্যে সাতজন, ইলিনয়ে চারজন এবং ইন্ডিয়ানায় তিনজন, আলাবামা এবং মিসিসিপি থেকেও প্রাণহানির খবর আসছে।

আরকানসাস রাজ্যের রাজধানী লিটল রকের একজন বাসিন্দা বলেন, একটি বড় ধরনের টর্নেডো দেখিছি। যা অবিশ্বাস্য রকমের ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে। ১৯৮৫ সাল থেকে এই সম্প্রদায়ে বসবাস করছি আমি। পুরো কাউন্টিটিকে বেশ ভাল করেই জানি। ঝড়ের পর জায়গাটি চিনতে না পেরে আমি অবাক হয়েছি...

আরাকানসাসের গভর্নর সারাহ স্যান্ডার্স এখনকার গভর্নরের দায়িত্বে আছেন। তিনি সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের কিছু সময় হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। টর্নোডার কারণে গত শুক্রবার নিজ রাজ্যে জরুরি অবস্থা জারি করেন। দুর্যোগ মোকাবিলায় ন্যাশনাল গার্ডকে প্রস্তুতি থাকার নির্দেশ দেন তিনি। সারা বলেন, পরিস্থিতি নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে কথা বলেছি, কেন্দ্রীয়ভাবে সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

আরও কয়েকদিন প্রচণ্ড বজ্রঝড় ও ভারী বাতাসের শঙ্কাসহ বৈরি আবহাওয়ার সতর্কতা জারি করেছে জাতীয় আবহাওয়া পরিষেবা। প্রবল বাতাস ও শিলাবৃষ্টিরও পূর্বাভাস রয়েছে। মার্কিন বিদ্যুৎ সেবা সংক্রান্ত ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, ওহাইও ও পেনসিলভানিয়া সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। দেশের বিভিন্ন রাজ্যে পাঁচ লাখ ৯০ হাজারের বেশি মানুষ বিদ্যুৎহীন রয়েছে।

সূত্র: বিবিসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত