36 C
Dhaka
Wednesday, September 30, 2020
No menu items!
More

    সময়ের ভাবনা

    অধ্যাপক ড. নিজামুল করিম
    নিজের পেশা ও দায়িত্বের বাহিরে দেশ নিয়ে ভাবনা নাগরিকের সহজাত প্রবণতা। করোনা মহামারীর দুর্যোগের কারণে দেশের সকল কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছে।

    এ বিপর্যয় মোকাবেলা করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন দিকনির্দেশনাসহ চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, হাত ধোয়া, ঘরে থাকা, লক ডাউন, ত্রাণ বিতরণ ও খাতভিত্তিক প্রণোদনা প্রদানের ঘোষণা প্রদান করেছেন। করোনা মহামারী একটি দীর্ঘমেয়াদি বৈশ্বিক মানবিক বিপর্যয়। এ বিপর্যয় মোকাবেলা ও সরকারি বিভিন্ন পদক্ষেপ বাস্তবায়নের জন্য প্রায়োরিটি নির্ধারণের পাশাপাশি স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি কর্মকৌশল গ্রহণ করা যেতে পারে।

    স্বল্পমেয়াদী কার্যক্রমগুলো হলো :
    ১। দ্রুত প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরন্জাম, আনুষঙগিক লজিস্টিক ও সেবাসহ অবকাঠামোর ব্যবস্থা করা, যা ইতিমধ্যে করা হচ্ছে।
    ২। সরকারি বেসরকারি সকল ক্ষেত্রে চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিতদের সুরক্ষা ও নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা এবং অনান্য স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখা।
    ৩।এম্বুলেন্স, টেস্টল্যাব, হাসপাতাল থেকে যেনো সংক্রমণ ছড়াতে না পারে তা নিশ্চিত করতে হবে।
    ৪। আক্রান্তদের চিহ্নিত করে চিকিৎসা সেবা প্রদানের পাশাপাশি সংশ্লিষ্টদের আইসোলেসন ও কোয়ারান্টাইনের ব্যবস্থা গ্রহণ।
    ৫। বিদেশ থেকে আগত সকলের টেস্ট ও কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা। জনগণের চলাচল সীমিত করা, সমাজিক দূরত্ব বজায় রাখা ও লকডাউন কার্যকর করা।
    ৬। যথাযথ নিরাপত্তা ব্যবস্থায় জরুরি সেবাসমূহ অব্যাহত রাখা। বিভিন্ন খাতে নিয়োজিত শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন ভাতা অনলাইনে পরিশোধের ব্যবস্থা গ্রহণ।
    ৭। সামাজিক নিরাপত্তাজাল-এর আওতায় ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ ও খাদ্য সহায়তা প্রদানের জন্য গ্রাম, মহল্লাভিত্তিক তালিকা করে কার্যক্রম গ্রহণ।
    ৮। ঔষধ, খাদ্য, কৃষিজাত পণ্য ও কৃষি উপকরণ পরিবহন ও সরবরাহের বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ।

    মধ্যমেয়াদী কার্যক্রমগুলো :
    ১। সরকার ঘোষিত বিভিন্ন প্রণোদনা কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্য সুফলভোগি ও অংশিজনকে সম্পৃক্ত করে নীতিমালা প্রণয়নসহ দরিদ্র জনগোষ্ঠির জন্য সামাজিক নিরাপত্তা কার্যক্রম অব্যাহত রাখা।
    ২। দূর্নীতি, অব্যবস্থা, সম্পদের অপব্যবহার ও কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ ও কঠোরভাবে অনুসরণ।
    ৩। খাদ্য উৎপাদন, জরুরি ভোগ্যপণ্য আমদানি ও রপ্তানিপণ্যের কর, শুল্ক বিষয়ে পুনর্বিবেচনা ও নীতি সহায়তা প্রদান।
    ৪। শিক্ষা ব্যবস্থা ক্ষতি পোষাণোর জন্য একাডেমিক ক্যালেন্ডার পুনর্বিন্যাস করাসহ বিকল্প পাঠদান পদ্ধতি চালু করা।

    দীর্ঘমেয়াদি কার্যক্রমগুলো হলো :
    ১। প্রবাসিদের সহায়তার জন্য কর্মসূচি গ্রহণ ও চাকরি হারানোদের দেশে প্রত্যাবর্তনের ব্যবস্থা গ্রহণসহ সহায়তা প্রদান।
    ২। সরকারি বেসরকারি পর্যায়ে কৃচ্ছসাধন ও সমন্বিত কার্যক্রম গ্রহণ।
    ৩। রপ্তানি শিল্পের সুরক্ষার জন্য নীতি কাঠামো প্রণয়ন।
    ৪। শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য প্রয়োজনে জরুরি অবস্হা ঘোষণা।
    ৫। কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও শিল্প খাতের চ্যালেঞ্জগুলো চিহ্নিত করে পেশাদার, এক্সপার্ট ও অংশিজনদের নিয়ে নীতিকাঠামো প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন।
    ৫। সরকারি কর্মচারীদের সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনের জন্য উদ্ধুধকরণ ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা।
    লেখক : সচিব, এনসিটিবি।

    সর্বশেষ

    ‘ধর্ষকদের অহেতুক কাঠগড়ায় দাঁড় না করিয়ে সরাসরি ক্রসফায়ার দেয়া দরকার’

    নিউজ ডেস্ক: আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, সিলেটের এমসি কলেজের ঘটনায় জড়িতদের অহেতুক বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় না করিয়ে...

    কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ মারা গেছেন

    নিউজ ডেস্ক: কুয়েতের আমির সাবাহ আল-আহমদ আল-জাবের আল সাবাহ মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায়...

    শিবগঞ্জের দেউলী ও সদর ইউনিয়নে ভিজিডি’র চাল বিতরণ

    রশিদুর রহমান রানা শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার দেউলি ও শিবগঞ্জ সদর ইউনিয়ন পরিষদে উপকারভোগীদের মাঝে ভিজিডি'র চাল বিতরণ করা হয়েছে।

    নন্দীগ্রামে ৩ হোটেল মালিকের জরিমানা

    নাজমুল হুদা, নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ বগুড়ার নন্দীগ্রামে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার রাখার দায়ে ৩ হোটেল মালিকের জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার (২৯...

    সীমান্ত হত্যা, পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ ২ দেশের সম্পর্কে আঘাত হানে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

    নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সম্পর্ক অত্যন্ত দৃঢ়। কিন্তু সীমান্ত হত্যা বা পেঁয়াজ আমদানি বন্ধের মতো কিছু বিষয় এই সম্পর্কের ওপর...