36 C
Dhaka
Monday, January 18, 2021
No menu items!

আমাদের বাঙালি পরিচয়ের মধ্যেই অবস্থান করেন রবীন্দ্রনাথ

------ ‌অধ্যাপক আনিসুজ্জামান

২০১৩ সালে দক্ষিণ কলকাতার বৈষ্ণবঘাটা পাটুলি অঞ্চলে আয়োজিত এক বইমেলায় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান-এর সঙ্গে আমার পরিচয় ।বইমেলার নির্দিষ্ট সভার পূর্বে, বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাঁর সঙ্গে নিভৃতে যে আলোচনা করেছিলাম, তাতে রবীন্দ্রনাথও বিষয় হিসাবে হাজীর হয়ে ছিলেন।

কারণ এই মানুষটি বাঙালির সর্বক্ষণ এবং সর্ব বিষয়ে পরম সহায় । রবীন্দ্রনাথকে বাদ দিয়ে বাঙালি অচল ।
রবীন্দ্রনাথ বিষয়ে অধ্যাপক আনিসুজ্জামান-এর যে অনুভূতি সেদিন ঘরোয়া আলোচনায় উঠে এসেছিল, তা অধ্যাপক আনিসুজ্জামান-এর স্মৃতির শ্রদ্ধা জানিয়ে, ব্যক্তিগত স্মৃতি থেকে নিচে দেওয়া হলো ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ করা প্রয়োজন, ২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত বইমেলার মূল আলোচনাসভা ভিডিও তে ধারণ করা হলেও, আমি অধ্যাপক আনিসুজ্জামান-এর সঙ্গে যেসব বিষয়ে আলোচনা করেছিলাম, তা রেকর্ড করা হয়নি। তাই নিচের লেখাটি সাত বছর পর স্মৃতি হাতড়ে লেখা। কোনও ভুলত্রুটি হলে, তার দায় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান-এর নয়, আমার ।
বিনীত
কেশব মুখোপাধ্যায়
২৪ মে ২০২০
“”””””””””””””””””'”””””””””””””””””””””””””””””‘”””

রবীন্দ্রনাথ প্রসঙ্গে অধ্যাপক আনিসুজ্জামান —–
রবীন্দ্রনাথ ! শব্দটি উচ্চারণ ক’রে তিনি থামলেন । একটু সময় নিয়ে বললেন, দিগন্ত বিস্তৃত খোলা মাঠের মধ্যে দাঁড়িয়ে, মুখ তুলে আকাশের দিকে তাকালে কী মনে হয় ? অনুভব হয় কী বিশালের মধ্যে আমার অবস্থান ।

রবীন্দ্রনাথকে চিন্তা করলে, ভাবলে বাঙালি হিসেবে একই অনুভূতি হয়। মনে হয় বিশাল রবীন্দ্র-আকাশে নিচে আমার অবস্থান ।

রবীন্দ্রনাথ কতভাবে যে বাঙালি জাতিকে তাঁর কাছে ঋণী রেখে গেছেন, তা বলে শেষ হয় না । পৃথিবীর সমৃদ্ধ সাহিত্য – সংস্কৃতির মঞ্চে বাঙালি হিসেবে আমরা আজ গর্বভরে দাঁড়াতে সক্ষম । নিজে আমরা যা হইনা কেন, আমরা উত্তরাধিকার হিসেবে বহন করছি রবীন্দ্রসৃষ্ট সাহিত্য ও সংস্কৃতি ।

আমাদের বাঙালি পরিচয়ের মধ্যেই অবস্থান করেন রবীন্দ্রনাথ ।এই ক্ষেত্রটা রবীন্দ্রনাথ বাঙালি জাতির জন্য তৈরি করে দিয়ে গেছেন । বাংলা ভাষা ও সাহিত্য – সংস্কৃতি শুধু নয়, তাঁর সৃষ্ট সাহিত্য, দর্শন, চিন্তা বিশ্ব সাহিত্য, সংস্কৃতি এবং সভ্যতা বিকাশেও সমৃদ্ধ ভূমিকা রেখেছে। পৃথিবীতে বহু খ্যাতিমান প্রতিভা নানাভাবে পৃথিবীর সাহিত্য- সংস্কৃতি এবং চিন্তার জগতকে আলোকিত করেছেন ।

কেউ কবিতা, কেউ ছোটগল্প, কেউ উপন্যাস, কেউ নাটক, কেউ গান, কেউ প্রবন্ধ, কেউ চিঠিপত্র, কেউ ভ্রমণ সাহিত্য, কেউ চিত্রকলা, কেউ শিক্ষা, কেউ বা দর্শনে। কিন্তু রবীন্দ্রনাথ হচ্ছেন এককের ভিতর দশ । এবং সবক্ষেত্রেই তিনি বিশ্বমানের । এই বিরল প্রতিভা পৃথিবীর আর কোথাও নয়, এবং বাংলাতেই জন্মগ্রহণ করেছিলেন । বাঙালি হিসেবে এর থেকে বড় গর্ব আমাদের আর কী হতে পারে ?

রবীন্দ্রপ্রতিভাকে বোঝা বা অনুধাবন করা, তাকে জীবনে ধারণ করার যোগ্যতা, সার্বিকভাবে আমরা এখনও অর্জন করতে পারিনি, রবীন্দ্রনাথের মৃত্যুর ষাট বছর অতিক্রান্ত হওয়ার পরও নয় । রবীন্দ্রনাথের উত্তরাধিকার বহন করা বাঙালি জাতি হিসেবে এটাই আমাদের চরম ব্যর্থতা এবং গ্লানি ।

পৃথিবীতে বাঙালি তার নিজস্ব বাঙালি পরিচয় নিয়ে যতদিন বেঁচে থাকবে, ততোদিন শ্রদ্ধার সঙ্গে রবীন্দ্রনাথের প্রতি বাঙালি জাতি তার ঋণ স্বীকার করবে ।

রবীন্দ্রনাথের মতো এত বিশাল, আর কোনও প্রতিভা আগামী এক হাজার বছরে জন্মগ্রহণ করবে কি- না জানি না । পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে রবীন্দ্র-চেয়ার, তাঁর নামে রাস্তা, রবীন্দ্রমূর্তি, রবীন্দ্র-সাহিত্যের অনুবাদ। বাঙালি হিসেবে এসব কি আমাকে গর্বিত করে না ? যদি না করে, তবে আমি কি নিজস্ব বাঙালি জাতি পরিচয় বহন করি ? অবশ্যই করি না ।

আমরা না বুঝলেও, পাকিস্তানের স্বৈরাচারী শাসকরা রবীন্দ্রনাথের প্রতিভা এবং তার শক্তির মূল্যায়ন করেই, বাঙালি জাতিকে শিকড়চ্যূত এবং পরগাছা পরিণত করতে পূর্ব বাংলায় রবীন্দ্রচর্চা নিষিদ্ধ করতে নানাভাবে চেষ্টা করেছিল । কিন্তু সেই অপচেষ্টা সফল হয়নি, বরং তাঁর লেখা গানই পরবর্তী সময়ে সেই ভূখণ্ড নিয়ে গঠিত স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশের জাতীয় সংগীত হয়েছে । এখানেই রবীন্দ্রনাথ ও তাঁর সৃষ্টির শক্তি, গভীরতা এবং ব্যাপ্তি ।

ধর্মীয় দ্বিজাতি তত্ত্বের ভিত্তিতে দেশভাগের পর, বাহান্নর ভাষা আন্দোলন থেকেই পূর্ব বাংলার বাঙালি, নিজস্ব বাঙালি পরিচয়ের শিকড় সন্ধানে ব্রতী হয় । সেই ঐতিহাসিক ক্ষণেই, পূর্ব বাংলার বাঙালি নতুন ক’রে আবিষ্কার করে রবীন্দ্রনাথকে । এবং পশ্চিম পাকিস্তানের আগ্রাসী হামলার হাত থেকে বাঙালির জাতিগত অস্তিত্ব রক্ষার প্রয়োজনেই শুরু হয় রবীন্দ্রচর্চা ।

রবীন্দ্রচর্চার মধ্যদিয়ে তিনি ওঠেন আমাদের অন্যতম প্রধান জাতিগত অবলম্বন এবং আগ্রাসী হামলা মোকাবেলায় প্রধানতম হাতিয়ার ।

রবীন্দ্রনাথকে চর্চা করলে বা রবীন্দ্রনাথের গান শুনলে, রবীন্দ্রনাথ ধন্য হন না । বরং রবীন্দ্রচর্চার মাধ্যমে আমাদের মনন ও চিন্তা নানাভাবে আলোকিত হয় । রবীন্দ্রনাথ আমাদের সর্বক্ষেত্রে ও সর্বক্ষণে পরম সহায় ।

লেখক – কোলকাতা হতে সাংবাদিক লেখক ও সংগঠক কেশব মুখোপাধ্যায়

সর্বশেষ

মারা গেলেন হত্যার দায়ে সাজাপ্রাপ্ত সংগীত প্রযোজক

নিউজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের প্রখ্যাত সংগীত প্রযোজক ফিল স্পেক্টর ৮১ বছর বয়সে মারা গেছেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত হত্যার দায়ে কারাবন্দী ছিলেন তিনি। এক...

এবার চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে দাওয়াত পাননি ববিতা

নিউজ ডেস্ক: বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে হয়ে গেলো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান ২০১৯। রোববার (১৭ জানুয়ারি) এ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের...

বিমানবন্দরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী স্বামী-স্ত্রী নিহত

নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর বিমানবন্দর থানা এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী স্বামী-স্ত্রী নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন, আকাশ ইকবাল (২৬) ও স্ত্রী হাজারিকা মায়া...

প্রথম দিনই ৭ মুসলিম দেশের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বাতিল করতে পারেন বাইডেন

নিউজ ডেস্ক: নব-নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পর প্রথম দিনই মুসলিমপ্রধান কয়েকটি দেশের ওপর ট্রাম্পের আরোপিত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা...

সিরিয়ায় অস্ত্রধারীদের হামলায় ৩ তুর্কি সেনা নিহত

নিউজ ডেস্ক: সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশের উত্তরে তুর্কি সেনা ঘাঁটিতে অস্ত্রধারীদের হামলায় তিন তুর্কি সেনা নিহত হয়েছে। দেশটির বাবতু উপশহরের কাছে এ হামলার...