36 C
Dhaka
Sunday, January 17, 2021
No menu items!

ভয়াবহ করোনা কাল-

নাজনীন খান

চলছে করোনা কাল। সারা বিশ্ব মানবতা আজ লড়ছে অদৃশ্য করোনা ভাইরাসের সাথে। পেরে উঠছে না উন্নত দেশগুলো। আর আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশে সরকার ছুটি ঘোষণা করেও কৌতুহলী জনতা কে ঘরে রাখতে পারছে না! সচেতনতা বৃদ্ধি ও নিরাপত্তার জন্য নিয়োজিত পুলিশ/সেনাবাহিনীকে নানা অজুহাত দেখিয়ে লোকজন বাইরে বের হচ্ছে! এটা যে তার জন্য তার পরিবারের জন্য, রাষ্ট্রের জন্য কতটা ক্ষতিকর তা কোনভাবেই লোকজনকে বোঝানো যাচ্ছে না। আমরা সত্যি এক অদ্ভুত দেশের বাসিন্দা,যেখানে নিজের ভালোও মানুষ বুঝতে চায় না! নিজেকে সবার আগে সচেতন হতে হবে,স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে, প্রয়োজনীয় প্রোটেকশন নিতে হবে, অপ্রয়োজনে বাইরে যাওয়া যাবে না।

যারা ঘরে থাকছেন,অন লাইনে অফিসিয়াল ব্যবসায়িক/ ব্যাংকিং/ব্যক্তিগত জরুরী কাজ করছেন, তারা শিক্ষিত ও সচেতন জনগোষ্ঠী আর যারা বিষয়টাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন না, ইচ্ছে মতো বাসার বাইরে বের হচ্ছেন, ঘুরে বেড়াচ্ছেন তাদের মধ্যে শিক্ষা, সচেতনতার অভাব আছে নিঃসন্দেহে। বলা হয়ে থাকে পাগলেও নিজের ভালো বুঝে কিন্তু আমাদের লোকজন কোনোভাবেই বুঝতে চাইছেন না যে তার এই খামখেয়ালীপনায় তিনি শুধু একাই বিপদে পড়বেন না, তিনি সংক্রমণ ঘটাবেন তার নিজের পরিবার পরিজনের মধ্যে, পাড়া-পড়শীর মধ্যে,দেশের সর্বত্র।

মাননীয় সরকার প্রধান বারবার ঘরে থাকার নির্দেশনা দিচ্ছেন। রাস্তায়, রাস্তায় মাইকিং করা হচ্ছে,খাবার যথাসাধ্য পৌঁছে দেয়া হচ্ছে দুস্থদের মধ্যে। তারপরও বাইরে যেতে হবে। করোনা নিয়ে আলাপ-আলোচনা করতে করতেই শুরু হয়ে গেছে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন। দ্রুত অবনতি ঘটছে পরিস্থিতির। এভাবে সংক্রমন বাড়তে থাকলে কোন পর্যায়ে যেয়ে ঠেকবে আমাদের অবস্থা, ভাবা যায়! যারা স্বাস্থ্য সেবা কর্মী, নিরাপত্তা কর্মী, সংবাদ কর্মী, প্রশাসনের বিভিন্ন প্রর্যায়ে নিয়োজিত প্রজাতন্ত্রের কর্মী আছেন, তাদের পরিস্থিতি সামাল দিতে বাইরে বের হতে হচ্ছে। নিজের জীবন বাজি রেখে তারা বের হচ্ছেন। সবাই মিলে চেষ্টা করছেন এর ভয়াবহতা সম্পর্কে মানুষকে বোঝাতে। সারা বিশ্বের ভয়ানক অবস্থা দেখেও আমাদের বোধোদয় হচ্ছে না। আমাদের এই দেশের কতোটাইবা সামর্থ আছে এই ভয়াবহ পরিস্থিতি থেকে উত্তোরণের যেখানে বিশ্বের উন্নত দেশগুলো হিমশিম খাচ্ছে!

তাই সবার প্রতি অনুরোধ, আমরা এখনো বুঝতে চেষ্টা করি, একান্ত প্রয়োজন ছাড়া বাসার বাইরে বের না হই। যারা বাধ্যতামূলকভাবে বাইরে যাচ্ছেন, প্রয়োজনে যেতে হচ্ছে তাদের বাড়ি ফেরার পর সহযোগিতা করি জার্মমুক্ত হতে। এটা এমন এক যুদ্ধ, যেখানে শত্রুর উপস্থিতি আমরা বুঝতে পারছি না। কখন আমরা নিরব এই ঘাতককে বহন করে নিয়ে আসবো ঘরে, আক্রান্ত করবো স্বজনকে বুঝতেও পারবো না। তাই সচেতন হই, বাসায় থাকি, অল্প খাওয়া-দাওয়া করি,ঘরেই হাটাহাটি করি,হালকা ব্যয়াম করি। কারণ আমার ব্যক্তিগত অভিমত করোনার আইসোলেশনে সবার জন্য মানসিক দৃঢ়তা ধরে রাখা অতো সহজ না।

তাই মহান আল্লাহর কাছে আমরা কায়মনোবাক্যে প্রার্থনা করি আমাদের যেন এই বিপদ থেকে উদ্ধার করেন। মহান আল্লাহর করুণা ছাড়া এই করোনা বিপদ থেকে উদ্ধার পাওয়া সম্ভব না। তাই আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের কাছে দোয়া করি, ক্ষমা চাই, আমাদের অবোধ মানুষদের মহান আল্লাহ যেন এই ভয়াবহ পরিস্থিতির ব্যাপকতা সম্পর্কে বোধ প্রদান করেন। সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, জরুরী প্রয়োজন ব্যতীত বাইরে যাবেন না। আর যারা যাচ্ছেন, যেতে হচ্ছে সংশ্লিষ্টতার জন্য তাদের জন্য দোয়া করি সবাই মিলে মহান আল্লাহ যেন তাদের হেফাজত করেন।

সর্বশেষ

মুন্সীগঞ্জে পুলিশের ভিডিও কনফারেন্স

কাজী দীপু, মুন্সীগঞ্জ : জেলা পুলিশে কর্মরত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাগণ মুন্সীগঞ্জ জেলায় রুজুকৃত মামলার হালনাগাদ অগ্রগতির বিষয়ে ঢাকা রেঞ্জ মনিটরিং সেলের সঙ্গে...

লৌহজংয়ে আ’লীগের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরন

লৌহজং (মুন্সিগঞ্জ) প্রতিনিধি: মুন্সিগঞ্জ-২ আসনের সাংসদ সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলির সহযোগিতায় ও নির্দেশে লৌহজং উপজেলার খিদির পাড়া ইউনিয়ন আ’মীলীগের উদ্যোগে ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের...

পরিবার-পরিজন নিয়ে দেখা যায় এমন সিনেমা তৈরি করুন

নিউজ ডেস্ক: সুস্থ ধারার চলচ্চিত্র নির্মাণের তাগিদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এমনভাবে সিনেমা তৈরি করতে হবে, যেন পরিবার-পরিজন নিয়ে দেখতে পারি।

চলচ্চিত্রে যতটুকু পাওনা ছিল, বোধহয় তার ইতি হলো: সোহেল রানা

নিউজ ডেস্ক: দেশীয় চলচ্চিত্রের সবচেয়ে সম্মানজনক জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৯ তুলে দেওয়া হয়েছে বিজয়ীদের হাতে। এ বছর চলচ্চিত্রে বিশেষ অবদান রাখায় যুগ্মভাবে...

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ মামলার বিচার শুরু

নিউজ ডেস্ক: সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ মামলার বিচার শুরু হয়েছে। রোববার (১৭ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় সিলেট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন...