36 C
Dhaka
Monday, January 18, 2021
No menu items!

অস্ট্রেলিয়ায় লালা-ঘাম ব্যবহার করে বলের উজ্জ্বলতা বাড়ানো নিষিদ্ধ

স্পোর্টস ডেস্ক: ক্রিকেট ম্যাচে বলের উজ্জ্বলতা বাড়ানো ও বলকে পরিষ্কার করতে মুখের লালা বা শরীরের ঘাম ব্যবহার করে থাকে ক্রিকেটাররা। যে রীতি করোনা পরবর্তী সময়ে এবার বাতিল করার চিন্তা-ভাবনা করছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (আইসিসি)।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকে এই সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে আইসিসি। বলের উজ্জ্বলতা বাড়ানোর জন্য বিকল্প উপায় খুঁজছে সংস্থার কর্তা-ব্যক্তিরা। এদিকে আইসিসি সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগেই ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্য ঝুঁকির কথা চিন্তা করে মুখের থুতু বা শরীরের ঘাম দিয়ে বলের উজ্জ্বলতা বাড়ানো নিষিদ্ধ করেছে অস্ট্রেলিয়া।

করোনাভাইরাস মহামারীর মাঝে পেশাদার ও বিনোদনমূলক খেলাধুলা ফেরানোর চিন্তা-ভাবনা অন্যান্য দেশের মতো চলছে অস্ট্রেলিয়াতেও। বিষয়টা মাথায় রেখেই বিধিনিষেধ জারি করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। যার ফলে মাঠে খেলা ফিরলে বল পরিষ্কারে লালা বা ঘাম ব্যবহার করা যাবে না।

মেডিকেল বিশেষজ্ঞ, ক্রীড়া সংস্থা এবং কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক সরকারের সঙ্গে মিলে একটি নির্দেশিকা তৈরি করেছে অস্ট্রেলিয়ান ইনস্টিটিউট অব স্পোর্ট (এআইএস)। স্থগিত খেলাধুলা পুনরায় শুরু হলে সবাইকে মেনে চলতে হবে এই নির্দেশিকা।

এআইএস’র দেওয়া ফ্রেমওয়ার্ক এ, বি ও সি এই তিন লেভেলের বিধিনিষেধ জারি করেছে। সে অনুযায়ী এ লেভেলের বিধি মেনে এখন কেবল ব্যক্তি পর্যায়ে অনুশীলন করা যাবে। কোনোভাবে দলীয় বা গ্রুপ অনুশীলন করা যাবে না।

খুব শিগগিরই বি লেভেলের বিধিনিষেধ কার্যকর হবে। ব্যাটসম্যানরা নেট প্র্যাকটিস করতে পারবেন। তবে নেট প্রতি বোলার সীমিত থাকবে। ফিল্ডিং সেশনের ওপর বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া হয়েছে। অপ্রয়োজনে অন্য কারোর সংস্পর্শে এসে ওয়ার্ম আপ ড্রিল করা যাবে না। অনুশীলনে বলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে ঘাম বা লালা ব্যবহার করা যাবে না।

চলতি বছরের শেষ দিকে পরিস্থিতি বিবেচনা করে পুরোদমে অনুশীলন ও প্রতিযোগিতা আয়োজনের অনুমতি দেওয়া হবে। তবে এজন্য সময় লাগবে। কিন্তু বলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে ঘাম বা লালা ব্যবহার করা যাবে না।

অস্ট্রেলিয়ায় ক্রিকেট খেলা শুরু হতে পারে শীতের আগে। উত্তরাঞ্চলীয় স্টেটগুলো খুলে দেওয়া হতে পারে। অস্ট্রেলিয়ার পরবর্তী সিরিজ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। আগস্টে আফ্রিকার এই দলটির বিপক্ষে খেলার কথা তাদের সীমিত ওভারের হোম সিরিজ।