36 C
Dhaka
Wednesday, January 27, 2021
No menu items!

১৭ ব্র্যান্ডের পণ্য নিষিদ্ধ করল বিএসটিআই

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ১৭টি পণ্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে পণ্যের মান প্রণয়ন এবং নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। শনিবার (২৫ এপ্রিল) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিএসটিআই জানিয়েছে, খোলাবাজার থেকে নজরদারি অভিযান পরিচালনা করে পণ্য কিনে বিএসটিআই ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষা করে বাংলাদেশ মানের (বিডিএস) চেয়ে নিম্নমানের এসব পণ্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে কারণ দর্শানোর নোটিশ এবং মান উন্নয়নের পর পুনরোনমোদনের ছাড়া বিক্রি বিতরণ ও বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপন প্রচার থেকে বিরত থাকার পাশাপাশি বাজার থেকে পণ্যগুলো প্রত্যাহার করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

রমজান উপলক্ষে নজরদারির মাধ্যমে সংগৃহীত নিম্নমানের পণ্যের প্রতিষ্ঠান, পণ্য এবং ব্র্যান্ডের নাম:
চট্টগ্রামের কল্পনা কমোডিটিস কোম্পানির এপি-১ ব্র্যান্ডের ঘি; চট্টগ্রামের চিটাগাং ফ্লাওয়ার মিলস-এর এ্যাংকর ব্র্যান্ডের সুজি; ‍যশোরের আল আমিন বেকারি অ্যান্ড কনফেকশনারির আল আমিন ব্র্যান্ডের লজেন্স; ঢাকার মি. বেকার অ্যান্ড পেস্ট্রি শপের মি. বেকার ব্র্যান্ডের বিস্কুট; ফরিদপুরের সেফ ফুড ইন্ডাস্ট্রিজের সাবা ব্র্যান্ডের চিপস (পটেটো); কক্সবাজারের রিয়াদ সল্ট ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের বঙ্গ ব্র্যান্ডের আয়োডিনযুক্ত লবণ; রাজশাহী মিষ্টান্ন ভাণ্ডারের আর এম ব্র্যান্ডের ঘি; বগুড়ার জিনিয়াস সেফ ফুড অ্যান্ড কনজ্যুমারের জিনিয়াস স্পেশাল ব্র্যান্ডের ঘি, সয়াবিন তেল ও হলুদের গুঁড়া; বগুড়ার সীমা ফ্লাওয়ার মিলস লিমিটেডের সীমা ব্র্যান্ডের সুজি; গাজীপুরের জি এম ফুড প্রোডাঃ এর এবি-১ ব্র্যান্ডের বাটার অয়েল ও রাজা ব্র্যান্ডের ঘি; গাজীপুরের শাহ ইন্টারন্যাশনাল ফুড প্রোডাঃ এর নুরজাহান ব্র্যান্ডের বাটার; শরীয়তপুরের মাদার ডেইরি এন্ড ফুড প্রোডাঃ এর বেস্ট-১ ব্র্যান্ডের ঘি; মৌলভীবাজারের শাহী ফুড প্রোডাঃ এর শমসের নগর শাহী ব্র্যান্ডের ঘি এবং একটি নাম ঠিকানা বিহীন ড্রামের লুজ সয়াবিন তেল।

পণ্যের মান সনদ পাওয়ার পর প্রতিষ্ঠানগুলো মানসম্পন্ন পণ্য উৎপাদন করছে কিনা যাচাই করতে খোলা বাজার থেকে পণ্য সংগ্রহ করে ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষা করে বিএসটিআই। এ বছর রমজান মাসে ভেজালমুক্ত পণ্য সরবরাহ এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে গত দুই মাসে ইফ্তার ও সেহরির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ধরনের খাদ্য পণ্য সার্ভিল্যান্স টিমের মাধ্যমে খোলাবাজার থেকে সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। বিএসটিআইয়ের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, মোট নমুনার সংগ্রহ করা হয়েছে ৫২১টি, পরীক্ষণ সম্পন্ন হয়েছ -২৫৩ টির। এর মধ্যে মানসম্মত পাওয়া গেছে ২৩৬ টি, নিম্নমানের ১৭ টি এবং পরীক্ষাধীন রয়েছে ২৬৮ টি নমুনা।

উল্লেখ্য, সরকার বিভিন্ন সময়ে এসআরও জারির মাধ্যমে ১৮১টি পণ্য বিএসটিআইয়ের বাধ্যতামূলক মানসনদের আওতাভুক্ত করেছে।

সর্বশেষ

এইচএসসির ফল প্রকাশের তারিখের অপেক্ষা

নিউজ ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের মধ্যে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না হওয়ায় গত বছরের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রস্তুত, প্রকাশ ও সনদ বিতরণের...

বাইডেন-পুতিনের প্রথম ফোনালাপে যে কথা হলো

নিউজ ডেস্ক: মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথমবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে ফোনে আলাপ করেছেন জো বাইডেন। হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, পুতিনের সঙ্গে প্রথম...

ভবিষ্যতে পুরোদস্তুর অলরাউন্ডার হতে চাই: রশিদ খান

স্পোর্টস ডেস্ক: রশিদ খানের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় স্পিনার হিসেবে। শুরু থেকে দুর্দান্ত লেগ ব্রেকে ব্যাটসম্যানদের জন্য যেন সাক্ষাৎ ‘যমদূত’ হয়ে ওঠেছেন...

৩ কোটি ৪০ লাখ মানুষ টিকা পাবে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশ বা ৩ কোটি ৪০ লাখ মানুষ ৬ কোটি...

বাংলাদেশের জন্য ম্যাকগ্রা-গিলেস্পিদের পরিকল্পনা সাজাচ্ছে উইন্ডিজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক: ২০০৪ সালে ভারত সফরের কথা। ভারতকে তাদের আঙিনায় হারাতে গ্লেন ম্যাকগ্রা ও জেসন গিলেস্পি বিশেষ পরিকল্পনা সাজান। মিডল স্টাম্প বরাবর...