36 C
Dhaka
Friday, September 18, 2020
No menu items!
More

    জন্মবার্ষিকীতে শহীদ জননী জাহানারা ইমামের প্রতি শ্রদ্ধা

    নিজস্ব প্রতিবেদক: জন্মদিনে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ জননী জাহানারা ইমামের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি।

    মহীয়সী এই নারীর ৯১তম জন্মবার্ষিকীতে রোববার সকালে রাজধানীর মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে তার সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান কমিটির সহপ্রচার সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ রুবেল নেতৃত্বে কয়েকজন নেতাকর্মী। তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের মহামারীর কারণে সামাজিক দূরত্বের বিধি মেনে বেশি জমায়েত না করে তারা জনাদশেক নেতাকর্মী শহীদ জননীর প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

    এদিকে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় শহীদ জননীর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রোববার বেলা ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত স্কাইপের মাধ্যমে ‘অনলাইন সম্মেলন’ করা হবে বলে নির্মূল কমিটির এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

    ‘করোনা ভাইরাস মহামারি মোকাবেলায় নির্মূল কমিটির চলমান কার্যক্রম এবং ভবিষ্যৎ কর্মসূচি’ নিয়ে সম্মেলনে কেন্দ্রীয় নেতা, দেশে ও বিদেশে সব শাখার নেতাকর্মীরা যুক্ত হবেন। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাধ্য অনুযায়ী করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ সংগ্রামে নিয়োজিত রয়েছে।

    নির্মূল কমিটির সভাপতি লেখক সাংবাদিক শাহরিয়ার কবিরের সভাপতিত্বে সম্মেলনের প্রথম পর্বে প্রথম অধিবেশনে চিকিৎসা সহায়ক কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব ও দ্বিতীয় অধিবেশনে এই কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. উত্তম বড়ুয়া প্রধান বক্তা থাকবেন।

    লেখিকা জাহানারা ইমাম (ডাক নাম জুডু)১৯২৯ সালের ৩ মে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা সৈয়দ আব্দুল আলী ছিলেন ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট। মা সৈয়দা হামিদা বেগম। প্রথম জীবনে শিক্ষা ও সংস্কৃতির সঙ্গে ‍যুক্ত থাকলেও স্বাধীনতার পরে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠেন তিনি।

    গত শতকের নব্বইয়ের দশকে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে গড়ে ওঠা গণআদালতের প্রধান উদ্যোক্তা জাহানারা ইমাম মরণব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ১৯৯৪ সালের ২৬ জুন যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে মারা যান।

    জাহানারা ইমামের আত্মজীবনীমূলক লেখা ১৯৮৬ সালে প্রকাশিত ‘একাত্তরের দিনগুলি’ বইটি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের একটি অসাধারণ দলিল হিসেবে দেখেন ইতিহাসবেত্তারা। সাহিত্যকর্মের জন্য তিনি ১৯৮৮ সালে ‘বাংলাদেশ লেখিকা সংঘ সাহিত্য পুরস্কার’ ও ‘কমর মুষতারী সাহিত্য পুরস্কার’ লাভ করেন। এছাড়া ১৯৯১ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান তিনি।

    ১৯৯১ সালে ২৯ ডিসেম্বর জামায়াতে ইসলাম গোলাম আজমকে আমির ঘোষণা করলে তার প্রেক্ষাপটে ১৯৯২ সালের ১৯ জানুয়ারি ১০১ সদস্যবিশিষ্ট একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি গঠিত হয়। জাহানারা ইমাম ছিলেন এর আহ্বায়ক।

    এর পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী প্রতিরোধ মঞ্চ, ১৪টি ছাত্র সংগঠন, প্রধান প্রধান রাজনৈতিক জোট, শ্রমিক-কৃষক-নারী এবং সাংস্কৃতিক জোটসহ ৭০টি সংগঠনের সমন্বয়ে পরবর্তীতে ওই বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন ও একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল জাতীয় সমন্বয় কমিটি’ গঠিত হয়।

    একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি’র এ আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় ‘শহীদ জননী’ হিসেবে দেশব্যাপী পরিচিত হয়ে ওঠেন মুক্তিযুদ্ধে ছেলে গেরিলা যোদ্ধা রুমিকে হারানো এই মা। একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধে তার ছেলে শফি ইমাম রুমী শহীদ হন এবং স্বামী শরীফ ইমামও ওই সময়ে মারা যান।

    সর্বশেষ

    অর্থনৈতিক উন্নয়ন বেগবানে ৩৪ হাজার কোটি টাকার ফান্ড ঘোষণা এডিবির

    নিউজ ডেস্ক: করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশসহ এশিয়ার দেশগুলোর অর্থনৈতিক উন্নয়নকে আরো বেগবান করতে এগিয়ে এসেছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। করোনা...

    নারায়ণগঞ্জে এবার মসজিদের হাউস পরিষ্কার করতে গিয়ে বিস্ফোরণ, নিহত একজন

    নিউজ ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জে আবারও একটি মসজিদের পাশে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। মসজিদের অজুখানার পানির হাউস পরিষ্কার করতে গিয়ে লোহার পাইপ বৈদ্যুতিক ট্রান্সমিটারের তারের...

    করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ২২ জন, নতুন শনাক্ত ১৫৪১

    নিউজ ডেস্ক: গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে চার হাজার...

    ২৪ সেপ্টেম্বর এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত

    নিউজ ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের কারণে স্থগিত হওয়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা কবে ও কীভাবে নেওয়া হবে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠক ডেকেছে...

    আইসিইউতে আল্লামা শফি, মেডিক্যাল বোর্ড গঠন

    নিউজ ডেস্ক: একদল শিক্ষার্থীর আন্দোলনের মুখে হাটহাজারী দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার মহাপরিচালক (মুহতামিম) পদ থেকে পদত্যাগ করার পর অসুস্থতাবোধ করায় হেফাজতে...