36 C
Dhaka
Thursday, October 1, 2020
No menu items!
More

    ২৩ লাখ ৮৯ হাজার পোশাক শ্রমিক বেতন পেয়েছেন: বিজিএমইএ

    নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সদস্যভুক্ত ২ হাজার ১৫৩টি কারখানা মালিক তাদের শ্রমিকের গত মার্চ মাসের বেতন-ভাতা পরিশোধ করেছেন। এসব কারখানায় মোট ২৩ লাখ ৮৯ হাজার ৫০০ জন শ্রমিক কাজ করেন। বিজিএমইএ সদস্যভুক্ত তৈরি পোশাক কারখানা রয়েছে ২ হাজার ২৭৪টি। ফলে এখনও ১২১টি কারখানায় বেতন হয়নি।

    আজ মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) বিজিএমইএ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। তথ্যমতে, এখন পর্যন্ত মোট ৯৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ কারখানা মালিক শ্রমিকের বেতন-ভাতা পরিশোধ করেছেন। বিজিএমইএ বলছে, এ পর্যন্ত (২১ এপ্রিল, সকাল পর্যন্ত) তাদের সদস্যভুক্ত ২ হাজার ১৫৩টি কারখানায় ২৩ লাখ ৮৯ হাজার ৫০০ জন শ্রমিক গত মার্চ মাসের বেতন-ভাতা পেয়েছেন। যা মোট শ্রমিকের ৯৬ দশমিক ৬৪ শতাংশ। এখনও ১২১টি কারখানা মালিক বেতন-ভাতা পরিশোধ করতে পারেননি যা মোট হিসেবের ৩ দশমিক ৩২ শতাংশ।

    বিজিএমইএ সদস্যভুক্ত মোট ২ হাজার ২৭৪ কারখানার মধ্যে ঢাকা মহানগর এলাকায় রয়েছে ৩৬০টি। এর মধ্যে গত মার্চের বেতন দিয়েছে ৩৩৯টি প্রতিষ্ঠান, বেতন হয়নি ২১টি কারখানায়। গাজীপুরের ৮০৮টি কারখানার মধ্যে বেতন দিয়েছে ৭৬৪টি, বাকি রয়েছে ৪৪টি, সাভার ও আশুলিয়ায় ৪৭১টির মধ্যে বেতন দিয়েছে ৪৫৮টি বাকি রয়েছে ১৩টি, নারায়ণগঞ্জের ২৬৯টি পোশাক কারখানার মধ্যে বেতন দিয়েছে ২৬০টি বাকি রয়েছে ৯টি, চট্টগ্রামের ৩২৪টি কারখানার মধ্যে বেতন দিয়েছে ২৯৩টি বাকি ৩১টির এবং প্রত্যন্ত এলাকার ৪২টি কারখানার মধ্যে বেতন দিয়েছে ৩৯টি বাকি রয়েছে ৪টির। এ হিসেবে মোট ২ হাজার ১৫৩টি কারখানায় ২৩ লাখ ৮৯ হাজার ৫০০ জন শ্রমিক মার্চ মাসের বেতন-ভাতা পেয়েছেন।

    তবে বিজিএমইএ-এর সদস্য নয়, যারা সাব কন্টাক্ট-এ কাজ করে এমন কতগুলো কারখানার শ্রমিক বেতন পাননি। তার কোনোও হিসেব নেই পোশাক মালিকদের বৃহৎ এ সংগঠনের কাছে। এদিকে বিকেএমইএ সদস্যভুক্ত ৮৩৩টি কারখানার মধ্যে ৮১৯টি কারখানা মালিক তাদের শ্রমিকদের বেতন পরিশোধ করেছে।

    বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক বলেন, আমরা এমন একটা সময় পার করছি যখন ক্রেতা তাদের অর্ডার বাতিল করছেন, তাদের কেউ দেরিতে টাকা দিচ্ছেন, কেউবা দিচ্ছেন না। এরপরও আমাদের দেওয়া সময়ের অধিকাংশ কারখানা শ্রমিকদের মজুরি পরিশোধ করেছে। বড় সব কারখানা তাদের বেতন পরিশোধ করলেও ছোট ও মাঝারি কিছু কারখানা তাদের বেতন পরিশোধ করতে পারেনি। আমরা তাদের সহযোগিতায় অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছি। যারা প্রচলিত/অপ্রচলিত পণ্য রপ্তানি করেন তাদের জন্য ব্যাংকে যাচ্ছি, সেখান থেকেও সাড়া পাচ্ছি।

    তিনি বলেন, তহবিল শুধু ব্যাংকের শর্তের মধ্যে সীমাবদ্ধ না, লক ডাউন চলছে, পরিবহন বন্ধ, সীমিত লেনদেন হচ্ছে, পুরোটা আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ। যেসব কারখানা বেতন পরিশোধ করতে পারিনি আমরা চেষ্টা করছি তাদের আগামী ২২ এপ্রিলের মধ্যে হবে, কোনোভাবেই ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত না যাওয়ার চেষ্টা করবো।

    সর্বশেষ

    অবৈধ ক্ষমতা দখলকারীরা জাতির পিতার ফসল ভোগ করেছে: প্রধানমন্ত্রী

    নিউজ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘অবৈধ ক্ষমতা দখলকারীরা ক্ষমতাকে পাকাপোক্ত করবার দিকে যতটা দৃষ্টি দেয়, দেশের মানুষের উন্নয়নের দিকে ততটা দৃষ্টি...

    ইয়েমেনে শিশু হত্যার দায়ে ট্রাম্প ও বাদশাহ সালমানের মৃত্যুদণ্ড!

    নিউজ ডেস্ক: ইয়েমেনে বোমা মেরে শিশু হত্যার দায়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ ও যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন...

    সাংবাদিক দীপঙ্কর চক্রবর্তীর মৃত্যুবার্ষিকী শুক্রবার, বিইউজে’র কর্মসূচি গ্রহণ

    নিউজ প্রতিবেদক, বগুড়া: আগামীকাল ২ অক্টোবর শুক্রবার বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের(বিএফইউজে) সাবেক সহ-সভাপতি দীপঙ্কর চক্রবর্তী হত্যাকান্ডের ১৬ বছর। ২০০৪ সালের এই দিনে...

    বাগেরহাট জেলা আইনজীবী সমিতির বিরুদ্ধে আদালতের জমি দখলের অভিযোগ

    বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাট জেলা আইনজীবী সমিতি আইন মন্ত্রণালয়ের মালিকানাধীন স্থানীয় বিচার বিভাগের জমি অবৈধভাবে দখল করে একাধিক ভবন নির্মান করেছে বলে অভিযোগ...

    বাগেরহাটে পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহনের অভিযোগ

    বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাটের শরণখোলা থানার ওসি তদন্ত মফিজুর রহমানেরে বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহন, প্রতিপক্ষকে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা করতে সহায়তা, নিরিহ একটি পরিবারকে হুমকী দেওয়াসহ...