36 C
Dhaka
Saturday, September 26, 2020
No menu items!
More

    ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন

    নভেল করোনাভাইরাসের আক্রমণে বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে গেছে যে, উন্নত দেশগুলোও তা সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে। প্রতিদিন বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ১০ লাখ লোক। মারা গেছে প্রায় ৬০ হাজার। আক্রান্ত এবং মৃত্যুর এ হিসাব থেকেই অনুমান করা যায় কতটা ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে বিশ্ব। গ্লোবাল ভিলেজের অংশ হিসেবে বাংলাদেশও এর বাইরে নয়। যদিও এখানে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা এখনও আশঙ্কাজনক পর্যায়ে পৌঁছায় নি। তবে, অসতর্কতার কারণে তা যে মহামারী আকারে দেখা দেবে না সে কথা গ্যারান্টি দিয়ে বলার উপায় নেই।

    এ কথা এখন প্রামাণিত যে, স্বাস্থ্য সচেতনতা এবং বিধি পালনই এ ভয়ঙ্কর ব্যাধির আক্রমণ থেকে নিজেকে রক্ষার প্রধান উপায়। সেজন্য সরকার গত ২৫ মার্চ থেকে সারা দেশে ছুটি ঘোষণা করেছে, গণপরিবহন বন্ধ করেছে, জনসাধারণকে নিষেধ করা হয়েছে বাইরে বেরোতে। গণমাধ্যমগুলো করোনা থেকে নিজেদেরকে সুরক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ স্ব স্ব উদ্যোগে প্রতিনিয়ত প্রচার করে চলেছে। কিন্তু উদ্বেগের বিষয় হলো, জনসাধারণের একটি অংশ সেসব সতর্কবাণীকে অবজ্ঞা উপেক্ষা করে চলেছে। রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে রাস্তায় বেরোতে নিষেধ করা হলেও তারা অহেতুক এখানে সেখানে জটলা পাকাচ্ছেন, চায়ের দোকানে রীতিমতো আড্ডা জমিয়ে বসছেন। পুলিশ, র‌্যাব এবং সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা শত চেষ্টা করেও তাদেরকে ঘরমুখো করতে পারছে না। এসব মানুষের বিবেক বুদ্ধি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। তারা কী নিজেদের এবং পরিবারের সদস্যদের স্বাস্থ্যঝুঁকির বিষয়টি একেবারেই বিস্মৃত হয়েছেন। ঢাকায় অহেতুক গাড়ি নিয়ে ঘোরাঘুরি করা কয়েকজনকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জরিমানা করার খবরও আমরা জেনেছি। মিরপুরে রাস্তায় উদ্দেশ্যহীন ঘোরাঘুরি করা ব্যক্তিদের এক ঘণ্টার পুলিশী দায়িত্ব পালনের অভিনব শাস্তির কথাও গণমাধ্যমে এসেছে। কর্তব্যরত পুলিশ তাদেরকে বাধ্য করেছে জনসাধারণকে সচেতন ও ঘরে যাওয়ার পরামর্শ দেয়ার কাজে পুলিশকে সাহায্য করতে।

    অবস্থাদৃষ্টে মনে হওয়াটা স্বাভাবিক যে, করোনার ভয়াবহতা সম্বন্ধে আমাদের জনসাধারণের একটি অংশ একেবারেই উদাসীন। তাদের এ আচরণ শুধু অনাকাঙ্খিতই নয় দুঃখজনকও বটে। কেউ কেউ এজন্য কারফিউ জারির কথাও বলেছেন। কিন্তু মানুষের জরুরি প্রয়োজনের কথা চিন্তা করেই সরকার হয়তো সে পদক্ষেপ নেয়নি। করোনা প্রতিরোধে সরকার তার সাধ্যমতো চেষ্টা করে যাচ্ছে। চিকিৎসকগণ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন, গণমাধ্যমকর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পরিস্থিতির আপডেট তুলে ধরে আমাদেরকে সচেতন করে তোলার চেষ্টা করছেন। কিন্তু আমরা সচেতন হচ্ছিনা। পরিস্থিতি বিবেচনায় প্রধানমন্ত্রী শেষ পর্যন্ত করোনা প্রতিরোধে তার ৩১ দফা নির্দেশনা জারি করেছেন। এরপরও যদি আমরা সচেতন না হই, তাহলে তা দুর্ভাগ্যজনক ছাড়া আর কী হতে পারে?

    আমরা মনে করি, যে কোনো উদ্যোগ একা সরকারের পক্ষে সফল করা সম্ভব নয়, যদি দেশবাসী তাতে সর্বান্তঃকরণে সহযোগিতা না করে। করোনার মতো ভয়ঙ্কর মহামারীর হাত থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করতে হলে সরকারের পাশপাশি আমাদের সবাইকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। যার যার ঘরে অবস্থান করে আমরা সে দায়িত্ব পালন করতে পারি। আমরা দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাই, আসুন আমরা সচেতন হই, সরকারের নির্দেশ মেনে চলি। নিজে সুস্থ থাকি, অপরকে সুস্থ রাখার চেষ্টা করি।

    সর্বশেষ

    ফ্লোয়েডের সুর

    মারইয়াম মনিকা আজ গিটারে বাজছে জর্জ ফ্লোয়েডের কান্নার সুরকরুণ সুরের মূর্ছনায় আকাশ ফালিফালি করে দিচ্ছে রুগ্ন দিকভ্রষ্ট ক্ষুধার্ত কাক।ঈগলের...

    সৌদি আরবে ফেরার টিকিট পেয়ে খুশি, তবে শঙ্কা এখন করোনা পরীক্ষা নিয়ে

    নিউজ ডেস্ক: ‘ফেরার টিকিট পেয়েছি। খুব ভালো লাগছে। শনিবার আমার ফ্লাইট। তবে দুশ্চিন্তাও আছে। করোনা টেস্ট করাতে হবে।’ আজ শুক্রবার বেলা সাড়ে...

    দেশের ৩ বিভাগে শনিবার থেকে ভারী বৃষ্টি, কমবে তাপমাত্রা

    নিউজ ডেস্ক: বৃষ্টি আর বন্যা দুটি একযোগে দেশের উত্তরাঞ্চলে আবারও আঘাত করেছে। কুড়িগ্রাম ও নাটোরসহ উত্তরাঞ্চলের কয়েকটি স্থানে বন্যা পরিস্থিতি দ্রুত অবনতি...

    শাজাহানপুরে শ্রমিকদলের প্রয়াত দুই নেতার রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া

    সজিবুল আলম সজিব শাজাহানপুর(বগুড়া)প্রতিনিধি: বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলা শ্রমিকদলের উদ্যোগে জেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত মতিউর রহমান মতি ও জেলা রিক্স্রা-ভ্যান শ্রমিকদলের সাবেক...

    শিবগঞ্জে বাড়ির রাস্তা বন্ধ করে প্রাচীর নির্মাণ, ও মারপিট,

    রশিদুর রহমান রানা শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পৌরসভার তেঘরি গ্রামে বাড়ির প্রধান চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে জবরদখল ও সীমানা প্রাচীর...